প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

মক্তবেও শেষ রক্ষা হলো না মেয়েটির!

৫ মে ২০১৮ , ০৭:০৫:০৩

ছবি: প্রতিনিধি

ময়মনসিংহের ত্রিশালে মক্তবে পড়ার সময় এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে এমন অভিযোগ উঠেছে। পরে লোকলজ্জার ভয়ে মেয়েটি গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। এ ঘটনায় মাদ্রাসা শিক্ষক মোবারক হোসেনকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার (৫ মে) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলা ধানীখোলা গ্রামে ঘটনাটি ঘটে। নিহত মেয়েটির নাম সোহাগী (১৩)। বাড়ি ত্রিশাল উপজেলার ধানীখোলা ইউনিয়নে। সোহাগী গয়সাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণিতে পড়ালেখা করতো। এ ঘটনায় তার বাবা ত্রিশাল থানায় একটি মামলা করেছেন।

এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে ত্রিশাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি, তদন্ত) ফায়জুর রহমান জানান, এ ঘটনায় উপজেলার বালিপাড়ার মোবারক হোসেন নামে এক শিক্ষককে আটক করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে তিনি আরও জানান,  প্রতিদিনের মত সকাল বেলা সোহাগী মক্তবে পড়তে যায়। তবে, আজ কাওরানবাড়ি ফূরকানিয়া মাদ্রাসার শিক্ষক মোবারক সোহাগীকে তার রুমে ডেকে নেয়। সেখানে সোহাগীকে ধর্ষণের চেষ্টা চালায় মোবারক। এমন সময় পাশে থাকা সেলিম নামে এক যুবক তা দেখে ফেলে।

পরে সে স্থানীয়দের নিয়ে গিয়ে মেয়েটিকে উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে আসে। এর কিছুক্ষণ পরেই ঘরের ভিতরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে সোহাগী। পরে বাড়ির লোকেরা টের পেলে দরজা ভেঙ্গে মেয়েটিকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেলে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

বিডি২৪লাইভ/ওয়াইএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: