ডেঙ্গু প্রতিরোধে ভ্যাকসিন

২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ০৬:২৪:৫৫

মশা বাহিত রোগ ডেঙ্গু প্রতিরোধে ভ্যাকসিন ব্যবহার করার অনুমতি দিয়েছে মেক্সিকোর স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ। বুধবার এই অনুমতি দেয়া হয়। এই প্রথম বিশ্বের কোনও দেশ ডেঙ্গু প্রতিরোধে ভ্যাকসিন ব্যবহার করার অনুমতি দিল। খবর বিবিসি, আল-জাজিরার।

বিশ্বের ৩৯০ মিলিয়ন লোক ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়। এশিয়া, আফ্রিকা ও ল্যাটিন আমেরিকার লোকেরা ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয় বেশি সংখ্যায়।

বুধবার মেক্সিকোর কেন্দ্র সরকারের চিকিৎসা সংস্থা বলে, বিশ্বে ২৯ হাজার ডেঙ্গু রোগীর ওপর এই ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হয়েছে। ডেঙ্গু ভাইরাস প্রতিরোধে কি ধরনের ওষুধ ব্যবহার করা হয়েছে তা প্রকাশ করেনি মেক্সিকো। তবে ফরাসি ভিত্তিক ওষুধ কোম্পানি ‘সানোফি পাস্তুর’ একে ‘ডেঙ্গাভেক্সা’ নামে চিহিৃত করেছে।

মেক্সিকো বলছে, এই ভ্যাকসিন ৯ থেকে ৪৫ বছর বয়সী রোগীদের দেহে প্রয়োগ করা যাবে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে এই ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা ৬৫.৯ শতাংশ সফল। এ সংক্রান্ত হু প্রতিবেদন গত সেপ্টেম্বরে দ্য নিউ ইংল্যান্ড জার্নালে প্রকাশ করেছে।

যারা ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মরণাপন্ন হয় তাদের ক্ষেত্রে এই ভ্যাকসিন প্রাণ দানকারী হিসেবে প্রতিপন্ন হয়েছে। এই ভ্যাকসিন প্রয়োগে ডেঙ্গু চরম সীমায় উঠতে পারবে না। তীব্র ডেঙ্গু আক্রান্ত ১০ জন রোগীর দেহে এই ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হয়েছিল। তাদের মধ্যে ৯ জন এই ভ্যাকসিনে সুস্থ হয়েছে।

অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের মাইক্রো বায়োলজি ও ইমিউনলজি বিভাগের অধ্যাপক ক্যামরোন সিমন্স বলেন, এই ভ্যাকসিন বিভিন্ন ধরনের ডেঙ্গু বাহিত রোগ প্রতিরোধ করবে। তবে ডেঙ্গু ভাইরাসকে সমূলে ধ্বংস করতে পারবে না এই ভ্যাকসিন।

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: