ব্ল্যাটারের শুভ কামনা

২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ০৬:৪০:৩৮

স্পোর্টস ডেস্ক:

'আমি আমার হৃদয়ের গভীর থেকে ফিফার নতুন প্রেসিডেন্ট জিয়ানি্নকে আন্তরিক অভিনন্দন জানাই। পুনর্গঠন কার্যক্রমের প্রত্যাশাটা তার ওপর সবচেয়ে বেশি। আমার উত্তরসূরি হিসেবে সে সফল হবে বলে আমার আস্থা আছে। ফিফাকে স্থির একটা অবস্থায় নিয়ে যাওয়া এবং আমার কাজগুলোকে এগিয়ে নেওয়ার জন্য যে অভিজ্ঞতা, সক্ষমতা, কৌশলজ্ঞান ও কূটনৈতিক দক্ষতা দরকার তার সব গুণই আছে ইনফান্তিনোর। আমি জিয়ানি্নর সৌভাগ্য ও সাফল্য কামনা করছি।'

ফিফার নবনির্বাচিত সভাপতি জিয়ানি্ন ইনফান্তিনোর জন্য এভাবেই শুভ কামনা জানিয়েছেন সতেরো বছর দায়িত্বে থাকা সেপ ব্ল্যাটার। তবে মৌখিকভাবে নয়, ব্ল্যাটারের এ শুভেচ্ছাবাণী পাওয়া গেছে তার মুখপাত্র ক্লস স্টোকারের পাঠানো ই-মেইলের মাধ্যমে। ১৯৭৫ সালে উন্নয়ন পরিচালক হিসেবে ফিফায় প্রবেশ করা ব্ল্যাটার ১৯৯৮-র পর থেকে সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন গত বছরের শেষদিক পর্যন্ত। মিশেল প্লাতিনির সঙ্গে নিয়মবহির্ভূত অর্থ লেনদেনে জড়িত থাকায় ছয় বছরের জন্য ফুটবলবিষয়ক সব কর্মকাণ্ড থেকে এখন বহিষ্কৃত আছেন। জুরিখের ফিফা কংগ্রেসে তাই অনুপস্থিত থাকতে হয়েছে তাকে।

গত বছরের মে-তে ফিফার সাধারণ কংগ্রেসে নির্বাচিত হয়েও চার দিন পর অনেককটা ইচ্ছার বিরুদ্ধেই পদ ছাড়ার ঘোষণা দিতে হয় ব্ল্যাটারকে। জিতলেও সবার সমর্থন পাননি বলে সে সময় উল্লেখ করেছিলেন। পরে এফবিআই কয়েকজন ফিফা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দুর্নীতি অভিযোগের তদন্ত শুরু করলে ব্ল্যাটার তাতে ফেঁসে যান। উয়েফা সভাপতি প্লাতিনিসহ ব্ল্যাটারকে সাময়িকভাবে তিন মাসের জন্য ফুটবল থেকে নিষিদ্ধ করে ফিফার নৈতিক কমিটি, যা পরে আট বছর এবং আপিল শুনানির পর ছয় বছর বলে সাব্যস্ত হয়।

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: