২ শিশুকে শ্বাসরোধে হত্যা: সৎভাইয়ের বিরুদ্ধে মামলা

২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ০৭:০৩:৫২

কুমিল্লা সদরের দক্ষিণ রসুলপুর (টুলিপাড়া) এলাকায় মেহেদী হাসান জয় (৭) ও মেজবাউল হক মনি (৫) নামে সহোদর দুই শিশুকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে। গতকাল বেলা সাড়ে ৩টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ওই দুই শিশুর বাবার নাম আবুল কালাম। তারা আবুল কালামের দ্বিতীয় স্ত্রী রেখা বেগমের সন্তান। প্রথম স্ত্রী রোকেয়া থাকেন কুমিল্লা শহরে। রোকেয়ার তিন মেয়ে ও এক ছেলে। দুই মেয়ে বিবাহিত। এক মেয়ে সুফিয়া আক্তার এসএসসি পরীক্ষার্থী। সুফিয়া দুই সহোদরের সঙ্গে বাড়িতেই থাকে। আর ছেলে শফিউল ইসলাম ঢাকায় একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়েন। মাঝে মধ্যে ওই বাড়িতে আসেন শফিউল।

পুলিশ জানায়, হত্যাকাণ্ডের খবর পেয়ে বিকাল ৪টার দিকে ওই বাড়ি থেকে শিশু দুটির মরদেহ উদ্ধার করা হয়। মরদেহ দুটি খাটের ওপর পাশাপাশি পড়ে ছিল। দুজনের গলায়ই আঘাতের চিহ্ন আছে। ধারণা করা হচ্ছে, শ্বাসরোধে তাদের হত্যা করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

নিহতদের বাবা আবুল কালাম জানান, সকাল ১০টার দিকে দ্বিতীয় স্ত্রীকে নিয়ে তিনি এক আত্মীয়ের বাড়িতে যান। মেহেদী ও মেজবাউল ছাড়াও বাড়িতে ছিল সুফিয়া ও শফিউল। বেলা ৩টার দিকে সুফিয়া ফোন করে তাকে জয় ও মনির মৃত্যুর খবর জানায়। দ্রুত তারা বাসায় ফিরে দুজনের মরদেহ দেখতে পান।

খবর পেয়ে সন্ধ্যার দিকে কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আলী আশরাফ ভূঁইয়া, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. আজিজুর রহমান, সদর দক্ষিণ মডেল থানার ওসি (তদন্ত) মোহাম্মদ আইয়ুবসহ পুলিশ ও র্যাবের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে যান।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আলী আশরাফ ভূঁইয়া সাংবাদিকদের বলেন, পারিবারিক কলহের জেরে এ হত্যাকাণ্ড ঘটতে পারে। অপরাধীকে দ্রুত গ্রেফতারের চেষ্টা করছে পুলিশ।

এর আগে ১৭ ফেব্রুয়ারি হবিগঞ্জের বাহুবল থেকে মাটিচাপা অবস্থায় চার শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। নিখোঁজের পাঁচদিন পর তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ওই চার শিশু হলো— বাহুবল উপজেলার সুন্দ্রাটিকি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণীর ছাত্র জাকারিয়া শুভ (৮), প্রথম শ্রেণীর ছাত্র মনির মিয়া (৭), চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্র তাজেল মিয়া (১০) ও সুন্দ্রাটিকি মাদ্রাসার ছাত্র ইসমাইল মিয়া (১০)। তাদের মধ্যে তিনজন সম্পর্কে আপন চাচাতো ভাই।

সূত্র: বনিক বার্তা

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: