আন্তর্জাতিক ডেস্ক: জমিজমা নিয়ে বিরোধের জের ধরে ভারতের মহারাষ্ট্রে সাত শিশুসহ একই পরিবারের ১৪ জনকে গলাকেটে হত্যা করেছে ওই পরিবারেরই এক সদস্য। ১৪ জনকে হত্যার পর হত্যাকারী নিজেও আত্মহত্যা করেছে। রবিবার সকালে নিজ বাড়িতে এই হত্যাকান্ড ঘটান এই ব্যক্তি। এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নিহতদের মধ্যে সাতটি শিশু ও ছয়জন নারী রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, ৩২ বছর বয়সী ঐ ব্যক্তি প্রথমে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে ও পরে গলা কেটে তাদের হত্যা করেন।

ঐ পরিবারের একজন নারী সদস্য হামলা শিকার হয়েও বেঁচে গেছেন। তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হামলাকারী ঐ ব্যক্তিকে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। তার হাতে একটি ছুরি ছিল। সম্পত্তি নিয়ে বিরোধের জেরে এই হত্যাকাণ্ড ঘটতে পারে বলে ধারণা করছে পুলিশ।