আন্তর্জাতিক ডেস্ক: পরমাণু অস্ত্র আধুনিকায়নের জন্য আমেরিকার শীর্ষস্থানীয় সামরিক কর্মকর্তারা দাবি তুলেছেন। তারা বলছেন, দেশটির কয়েক দশকের পুরানো পরমাণু অস্ত্র আধুনিকায়নে আর দেরি করা উচিত হবে না। খবর-রেতে।

মার্কিন স্ট্রাটেজিক কমান্ডের কমান্ডার অ্যাডমিরাল সিসিল হ্যানিসহ পেন্টাগনের কর্মকর্তারা মনে করেন, আধুনিকায়নের প্রক্রিয়া এখনই শুরু করতে হবে; না হলে অন্য দেশের হামলার মুখে মার্কিন পরমাণু প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কার্যকারিতা হারাবে। এছাড়া, মার্কিন পরমাণু অস্ত্র সবচেয়ে পুরনো বলেও মন্তব্য করেছেন তারা।

এর আগে মার্কিন উপ প্রতিরক্ষা সচিব রবার্ট ওয়ার্ক বলেছেন, আমেরিকার তিন পর্যায়ের পরমাণু অস্ত্র আধুনিকায়ন করতে ২০২১ থেকে ২০৩৫ সাল পর্যন্ত প্রতিবছর ১৮০ কোটি ডলার ব্যয় হবে। এসব অস্ত্র স্থল, সমুদ্র এবং আকাশ থেকে ছোড়া যায়। মার্কিন ভাণ্ডারের সব পরমাণু অস্ত্রই বদলে ফেলতে হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এ কাজে দেরি করা যাবে না।

গত ৬ জানুয়ারি উত্তর কোরিয়ার চালানো পরমাণু পরীক্ষা নিয়ে যখন সামরিক ও কূটনৈতিক উত্তেজনা চলছে তখন মার্কিন পরমাণু অস্ত্রভাণ্ডার আধুনিকীকরণের বিষয়টি সামনে আনা হলো।