BD24Live
ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ জানুয়ারি ২০১৭, ৪ মাঘ ১৪২৩

প্রবাসী শ্রমিক নিরাপত্তা আইন কার্যকর হতে যাচ্ছে আমিরাতে

২০১৭ জানুয়ারি ১২ ০৩:০১:৪৪
প্রবাসী শ্রমিক নিরাপত্তা আইন কার্যকর হতে যাচ্ছে আমিরাতে

বাংলাদেশী প্রবাসীসহ সকল প্রবাসীদের জন্য নিরাপত্তাজনীত এক গুরুতবপূর্ন অধিবেশনের সময় হামাদ আহমদ আল রাউমি এর সঙ্গে সাকার ঘবাশ বলেন, ফৌজদারি কমিটি প্রত্যাশিত আইন ও পরিকল্পনার প্রতিবেদন জমা রাখে যা রেকর্ড নিরূপণ সংক্রান্ত হিসেবে আবুধাবিতে।

সরকার বিদেশী কর্মীদের জন্য খুব তাড়াতাড়ি নিরাপত্তাজনিত আইন কার্যকর করতে যাচ্ছেন , এ বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ সিদ্ধান্ত নিবেন খুব শীঘ্রই এই আশা করা হচ্ছে। নিরাপত্তা জনিত চেক করা শুরু করবে বলে একজন মন্ত্রী মঙ্গলবার ফেডারেল ন্যাশনাল কাউন্সিল এ বলেন। সাক্রর ঘবাশ সাঈদ ঘবাশ , মানব সম্পদ ও আমিরাতের মন্ত্রী বলেন, বিদেশী শ্রমিকদের উপর আবহ পটভূমি ও তার নিরাপত্তাজনিত চেক গত বছরের অক্টোবর মাসে মন্ত্রিসভায় নীতিগতভাবে অনুমোদন করা হয়।

“একটি কমিটি তার স্বরাষ্ট্র, পররাষ্ট্র ও মানব সম্পদ এবং আমিরাতের মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিদের নিয়ে গঠিত করে স্থাপন করেছিলেন তার তথ্যও যা কয়েক সপ্তাহের মধ্যে মন্ত্রিপরিষদ জমা দেওয়া হবে। আমরা আশা একটি মন্ত্রিপরিষদ সব প্রবাসী শ্রমিকদের উপর নিরাপত্তা ও চেকজনিত আচার ও তার সিদ্ধান্ত শীঘ্রই জারি করা হবে, “মন্ত্রী বলেন। ঘবাশ হামাদ আল রাহউমি, দুবাই থেকে একটি সদস্য দএর মাধ্যমে একটি প্রশ্নের উত্তর দিয়েছিল , বিদেশী শ্রমিকদের উপর কঠোর নিরাপত্তাজনিত চেক এর জন্য কলিং হিসাবে আরো বিস্তারিত জানা যায় জর্ডানের মানুষের ক্ষেত্রে, যারা অপহরনের দোষীতে সাব্যস্ত হয়েছে সেই সম্পর্কে উত্থান, ধর্ষণ এবং একটি আট বছর বয়েসী ছেলে হত্যার হয় গত বছর।

৪,৫ ” মিলিয়ন এর বেশী প্রবাসী জীবিত এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতে কর্মরত শ্রমিক, কিন্তু কোন অতীত অপরাধমূলক কর্মকান্ডের জন্য কোন ব্যাকগ্রাউন্ড চেক করা ও তাদের উপর পরিচালিত হয়,” আল রাউমি হাউস বলেন, আর এই জনযি যত দ্রুত সম্ভব প্রবাসী শ্রমিকদের সার্থে তাদের জন্য নিরাপত্তা জোরদার করতে হবে।

নির্বিশেষে – আমিরাত নিশ্চিত করতে চায় যে তাদের দেশে অবস্থানরত প্রবাসী কর্মীরা নিরাপদ ও ভালো আছে। একটি অপরাধমূলক রেকর্ড মুক্ত করতে চান তাদের দেশকে ।
“যদি কোনো ব্যক্তি তাঁর / তার দেশে একটি অপরাধ কাজ সংঘটিত করেন এবং ঐ ব্যক্তির একটি অপরাধমূলক কাজের রেকর্ড থাকে, তাহলে সেখানে আমাদের যদি না জানা থাকে তখন তো নিরাপত্তা পরীক্ষার মধ্যদিয়ে যাওয়া ছাড়া কোনো উপায় নেই,” আল রাউমি বলেন,। ভাবছি কিভাবে নিরাপত্তা ছাড়পত্র দিতে পারি , অনিস্ট করা থেকে । প্রয়োজনে এই পরামশ্য আমিরাতে প্রবাসীদের কাছ থেকে নেব।
আল রাউমি এখন বিশ্বের অন্নান্য রাষ্ট্রর সঙ্গে এই সম্পর্কে কথা বলেন, ও শ্রমিক, দর্শকদের নিরাপত্তার পরীক্ষার মধ্যদিয়ে একটি উদ্বেগের আলোচনা ও আরো কিছু যা সংযুক্ত আরব আমিরাতে জন্য সুরাহা করা প্রয়োজন হয় সেই পরিণত এবং এর ফলাফলের অবশ্যই একটা চুরান্তু ব্যবস্থা করতে চান।

পাঠকের মতামত:

প্রবাসে বাংলা এর সর্বশেষ খবর

প্রবাসে বাংলা - এর সব খবর



রে