অস্ত্রোপচারের সময় রোগীর মৃত্যু, ডাক্তার আটক

     
প্রকাশিত: ১১:৫৯ পূর্বাহ্ণ, ৫ জুলাই ২০১৯

ছবি: ইন্টারনেট

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে হাসপাতালে ডাক্তারের হাতে অস্ত্রোপচার করতে গিয়ে ভুল চিকিৎসায় রোগী মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় হাসপাতালে ভাঙচুর করেছেন বিক্ষুব্ধ স্বজনরা। অভিযুক্ত চিকিৎসককে আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) রাতে অস্ত্রপাচারের সময় রোগীর অবস্থার অবনতি হলে এক পর্যায়ে মৃত্যুর মূখে ঢলে পড়ে রোগী।

এবিষয়ে পুলিশ ও র‌্যাব সূত্রে জানা যায়, চার বছর আগে শহরের চন্ডিবের এলাকার সড়ক দুর্ঘটনায় জুয়েল মিয়ার হাত ভেঙে গেলে ভৈরব ট্রমা জেনারেল হাসপাতালে অপারেশন করে রড লাগানো হয়। বৃহস্পতিবার রাতে ওই রড অপসারণে অস্ত্রোপচার শুরু করেন একই হাসপাতালের চিকিৎসক কামরুজ্জামান আজাদ। কিছুক্ষণের মধ্যেই স্বজনদেরকে রোগীর অবস্থা খারাপ জানিয়ে নার্স ও চিকিৎসকরা পালানো চেষ্টা করেন। পরে জুয়েলের মৃত্যুর বিষয়টি জানতে পেরে বিক্ষুব্ধ স্বজনরা হাসপাতাল ভাঙচুর করে চিকিৎসকে অবরুদ্ধ করেন।

হাতের অস্ত্রোপচার করতে কেন রোগীর মৃত্যু হলো এ প্রশ্নের কোনো সদুত্তর মেলেনি অভিযুক্ত চিকিৎসকের কাছ থেকে। অভিযুক্ত চিকিৎসক কামরুজ্জামান আজাদ বলেন, আমরা পুরোপুরি অজ্ঞানও করি নাই। এক সাইট ব্লক দিয়ে ঘুমের ওষুধ দেয়া হয়েছিল। সেই ঘুমের মধ্যেই তিনি হার্ট অ্যাটাক করেছেন। সম্ভবত চারদিকের থেকেই রক্তপাত হওয়া শুরু হয়।

খবর পেয়ে পুলিশ ও র‌্যাব সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। সেইসাথে আটক করা হয় অভিযুক্ত চিকিৎসককে।

ভৈরব ক্যাম্প র‌্যাব কোম্পানি কমান্ডার রাফিউদ্দিন যোবায়ের বলেন, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করি। এছাড়া তাকে পুলিশ হেফাজতে নিয়ে আসি।

 

এসএ/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: