মোঃ আসাদুজ্জামান

বরগুনা প্রতিনিধি

‘আদালতে আসার আগে মুরগির মাংস দিয়ে ভাত খেয়েছেন মিন্নি’

   
প্রকাশিত: ১১:১২ পূর্বাহ্ণ, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০

ফাইল ফটো

বরগুনার আলোচিত মো. শাহনেওয়াজ রিফাত শরীফ (২৬) হত্যা মামলার রায় ঘোষণা করা হবে আজ বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর)। এরই মধ্যে সাদা পোশাকে আদালতে উপস্থিত হয়েছেন এ মামলার অন্যতম আসামি ও নিহত রিফাতের স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নি। এরই মধ্যে বাবার সাথে আদালতে এসেছেন মিন্নি।

মিন্নির বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোর বলেন, ‘আদালতে আসার আগে মিন্নি মুরগির মাংস দিয়ে ভাত খেয়েছেন। মিন্নি আমার মেয়ে, আমি যেমন এখন শক্ত আছি, আমার মেয়েও তেমনই আত্মবিশ্বাসী। রায় যাই হোক, আমরা কোনোভাবে বিচলিত নই।’

মোজাম্মেল হোসেন কিশোর আরও বলেন, ‘আমিও বিশ্বাস করি, যদি আদালতে কারো হস্তক্ষেপ না থাকে, তাহলে আমার মেয়ে খালাস পাবে। আর যদি কোনো প্রভাব থাকে, তাহলে তাঁকে কোনোভাবে ফাঁসানো হতে পারে। তবে আমি এতটুকুও বিচলিত নই। কারণ, বাংলার জমিনে আদালত একটা না। অবশ্যই আমি কোনো না কোনো আদালতে ন্যায়বিচার পাব।’

২০১৯ সালের ২৬ জুন বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে প্রকাশ্যে নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যা করা হয় রিফাত শরীফকে। মামলার ২৪ আসামির মধ্যে নিহত রিফাতের স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নিসহ প্রাপ্তবয়স্ক ১০ আসামির রায় ঘোষণা আজ। মামলার প্রধান আসামি মো. সাব্বির আহম্মেদ নয়ন ওরফে নয়নবন্ড গত বছরের ২ জুলাই ভোররাতে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হন। অন্য একজন আসামি মো. মুসা আগে থেকেই পলাতক।

এ মামলায় মোট ৭৬ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়। মামলায় রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন বরগুনার সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) ভুবন চন্দ্র হালদার। সঙ্গে ছিলেন প্যানেলভুক্ত আইনজীবী এ এম মুজিবুল হক কিসলু ও মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল। আসামিদের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট মাহবুবুল বারী আসলাম, মো. শাহজাহান মিয়া, হুমায়ুন কবীর, অলি উল্ল্যাহ সবুজ ও আবদুর রহমান নান্টু।

এমআর/এনই

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: