প্রচ্ছদ / সারাবিশ্ব / বিস্তারিত

আমেরিকার অধিকার নেই হুমকি দেয়ার: রাশিয়া

   
প্রকাশিত: ১০:৪০ অপরাহ্ণ, ২৪ জানুয়ারি ২০২০

জেনারেল কাসেম সোলেইমানির মতো ইরানের বিপ্লবী গার্ডের অভিজাত শাখা কুদস ফোর্সের নয়া কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইসমাইল কায়ানিকেও একই পরিণতি ভোগের যে হুমকি যুক্তরাষ্ট্র দিয়েছে সেটিকে ‘অগ্রহণযোগ্য’ বলে আখ্যা দিয়েছে রাশিয়া। বৃহস্পতিবার (২৪ জানুয়ারি) মস্কোয় এক সংবাদ সম্মেলনে রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাখারোভা তার দেশের এ অবস্থান তুলে ধরে এ মন্তব্য করেন।

এদিকে বৃহস্পতিবার সুইজারল্যান্ডের দাভোসে এক সাক্ষাৎকারে যুক্তরাষ্ট্রের ইরান বিষয়ক বিশেষ দূত ব্রায়ান হুক বলেন, কুদস ফোর্সের নয়া কমান্ডার কায়ানি যদি সাবেক কমান্ডার জেনারেল সোলেইমানির পথ অনুসরণ করেন, তাহলে তাকেও একই পরিণতি ভোগ করতে হবে। ব্রায়ানের জবাবে রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বলেন, ‘আমরা আরেকবার এ কথা বলতে চাই যে, এ ধরনের হুমকি আমাদের কাছে অগ্রহণযোগ্য। আইন ও অধিকার লঙ্ঘন করে এ ধরনের বক্তব্য দেয়া হয়েছে এবং একজন রাষ্ট্রীয় প্রতিনিধির এ ধরনের কথা বলার কোনো অধিকার নেই।’

উল্লেখ্য, গত চলতি মাসের ৩ তারিখে ইরাকের বাগদাদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বের হওয়ার সময় ইরানের জেনারেল কাশেম সোলেইমানির ওপর গুপ্ত কায়দায় হামলা চালিয়ে তাকে হত্যা করে মার্কিন বাহিনী। তার হত্যাকাণ্ডের পর ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনী কুদস ফোর্সের কমান্ডার হিসেবে জেনারেল কায়ানিকে নিয়োগ দেন।

নিয়োগ পাওয়ার পর গত ৯ জানুয়ারি আয়াতুল্লাহ আলী খামেনীকে কায়ানি জানান, সর্বশক্তি দিয়ে তিনি জেনারেল কাসেম সোলেইমানির পথ অনুসরণই করবেন। কায়ানি মধ্যপ্রাচ্য থেকে মার্কিন সেনাদের হটানো তার লক্ষ্য বলেও জানান ইরানের সর্বোচ্চ নেতাকে। এ বিষয়ে তেহরান মনে করছে, জেনারেল কাসেম সোলেইমানি মধ্যপ্রাচ্যে ইরানের সামরিক পরিসর বাড়ানোর ক্ষেত্রে পেছনের কারিগর হিসেবে ভূমিকা রাখছিলেন বিধায় যুক্তরাষ্ট্র ও তার সবচেয়ে বড় মিত্র ইসরায়েলের মাথাব্যথা হয়ে ওঠেন। সেজন্য তাকে হত্যায় এমন চোরাগোপ্তা কায়দা বেছে নেয় দেশটি।

এফএএস/এসএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: