প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

‘আম্মু’ ডেকে সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ, ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা!

   
প্রকাশিত: ৯:৩৪ পূর্বাহ্ণ, ২৩ অক্টোবর ২০২০

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার সপ্তম শ্রেণির এক মাদ্রাসা ছাত্রী (১৫) ধর্ষণের শিকার হয়ে ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছে। এ ঘটনায় মেয়েটির মা পাটগ্রাম থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

বৃহস্পতিবার (২২ অক্টোবর) সন্ধ্যায় পাটগ্রাম থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত যুবক নুর ইসলাম বাবুকে (৩৫) গ্রেফতার করেছে। তিনি উপজেলার জোংড়া ইউনিয়নের ইসলামপুর এলাকার কাশেম আলীর ছেলে। বাবু দুই সন্তানের জনক।

জানা গেছে, ইসলামপুর এলাকার সপ্তম শ্রেণির এক মাদরাসাছাত্রী চার-পাঁচ মাস আগে বাড়ির পাশে রেললাইনের ধারে ছাগল আনতে গেলে প্রতিবেশী চাচা নুর ইসলাম বাবু ফুসলিয়ে ভুট্টা ক্ষেতে নিয়ে ধর্ষণ করে। এ ঘটনা কাউকে জানালে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে ওই ছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণ করে।

ধর্ষণের শিকার মেয়েটির শারীরিক অবস্থার পরিবর্তন দেখা দিলে তার চাচি মেয়েটির কাছে বিষয়টি জানতে চান। মেয়েটি জানায় প্রতিবেশী চাচা নুর ইসলাম বাবু তাকে জোরপূর্বক একাধিকবার ধর্ষণ করেছে।

ওই ছাত্রী বলেন, প্রতিবেশী চাচা নুর ইসলাম বাবু কখনও মা আবার কখনও আম্মু ডেকে বিভিন্নভাবে কুপ্রস্তাব দিত। আমি একা রেললাইনের ধারে ছাগল আনতে গেলে সে আমাকে মুখ চেপে ধরে ভুট্টা ক্ষেতে নিয়ে ধর্ষণ করে। এ কথা কাউকে জানালে সে আমাকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়।

পাটগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুমন কুমার মহন্ত জানান, বৃহস্পতিবার মেয়েটির মা পাটগ্রাম থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেছেন। অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। শুক্রবার লালমনিরহাট আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হবে। মেয়েটির স্বাস্থ্য পরীক্ষার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।

এআইআর/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: