প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

মনজুরুল ইসলাম

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি

আসলেন চিকিৎসা নিতে, ফিরলেন লাশ হয়ে!

   
প্রকাশিত: ৪:০৩ অপরাহ্ণ, ২২ আগস্ট ২০২০

ছবি: প্রতিনিধি

ময়মনসিংহের ভালুকায় সড়ক দুর্ঘটনায় একই পরিবারের ৪ জনসহ ৬ জন নিহত হয়েছেন। নিহতরা একই পরিবারের তিন নারী ও ১ শিশুসহ ৪ জন চিকিৎসা নিতে ময়মনসিংহে আসছিলেন বলে জানা গেছে। নিহতদের মধ্যে একই পরিবারের ৪ জন গাজীপুরের জয়দেবপুর উপজেলার রুদৌপুর গ্রামের হাসিনা বেগম (৩০), তার বোন নাজমা বেগম (২৬), হাসিনার ছেলে হাসিবুল হাসান (৮), হাসিনার শ্বাশুড়ি জান্নাতি বেগম (৬০) এবং চালক মনির হোসেন (৫০)। তাদের প্রতিবেশী ত্রিশাল উপজেলার দরিরামপুর গ্রামের বিল্লাল হোসেন (৪১)।

শনিবার (২২ আগস্ট) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে ভালুকা ডিগ্রি কলেজের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

ভালুকা ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার আল নোমান বলেন, ঢাকা থেকে ময়মনসিংহগামী প্রাইভেটকারটিকে ইউটার্ন নেওয়ার সময় ময়মনসিংহ থেকে ঢাকাগামী ইমাম পরিবহনের একটি বাস ধাক্কা দেয়। এতে প্রাইভেটকারটি দুমড়ে মুচড়ে যায় এবং ঘটনাস্থলেই চালক ও পাঁচ যাত্রী নিহত হয়।

নিহতদের পরিবার বরাত দিয়ে তিনি আরও বলেন, একই পরিবারের ৪ জন গাজীপুরের জয়দেবপুর উপজেলার রুদৌপুর গ্রামের হাসিনা বেগম, তার বোন নাজমা বেগম, হাসিনার ছেলে হাসিবুল হাসান, হাসিনার শ্বাশুড়ি জান্নাতি বেগম চিকিৎসা নিতে ময়মনসিংহে আসছিলেন বলেও জানান তিনি।

ভালুকা থানার ওসি মাইন উদ্দিন বলেন, মরদেহ ভালুকা ভরাডোবা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়িতে রাখা হয়েছে। মরদেহ স্বজনদের কাছে বুঝিয়ে দেয়ার প্রক্রিয়া চলছে। বাসের চালক পলাতক রয়েছে তাকে আটক করে আইনগত ব্যবস্থা নেযা হবে বলেও জানান তিনি।

এমআর/এনই

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: