সবজিতে কেজি প্রতি বাড়ছে ৫-১০ টাকা

ঈদকে ঘিরে কাঁচা বাজারে চড়া দাম

১ জুন ২০১৯, ১০:২৭:৪৮

আর মাত্র কয়েকদিন পরেই পবিত্র ঈদুল ফিতর। ঈদকে সামনে রেখে রাজধানীর কাঁচা বাজারগুলোতে বাড়ছে মাছ, মাংস ও সবজির দাম। রাজধানীর মোহাম্মদপুর এলাকার কাঁচা বাজারগুলো ঘুরে এ তথ্য পাওয়া গেছে। 

সরেজমিনে রাজধানীর মোহাম্মদপুর কৃষি মার্কেটের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য, পেঁয়াজ, রসুন, আলু, পটল, বেগুন, শশা, সবজি, মাছ, গরুর মাংস ও মুরগির বেচাকেনা কম। 

এদিকে ক্রেতারা বলছেন, পণ্যের দাম কেজি প্রতি ৫ থেকে ১০ টাকা বেশি নেয়া হচ্ছে।

বেচাকেনা কম হওয়া ও দাম বেশি হওয়ার কারণ কি জানতে চাইলে ব্যবসায়ী শহিদুল ইসলাম বিডি২৪লাইভকে বলেন, কয়েকদিন পরেই ঈদ। পেঁয়াজ, আলু, রসুন ১০ থেকে ১৫ রমজানেই কিনে রেখেছে মানুষ। তাছাড়া আড়তে মাল কিনতে গেলে এখন দাম বেশি রাখছে আমাদের থেকে। তাই আমরাও বেশি দামে বিক্রি করছি।

গরুর মাংস বিক্রেতা মুজিবুর রহমান বলেন, মাংস বিক্রি কম এখন। ১০ রোজার মধ্যে সাবাই প্রয়োজন মত কিনে রেখেছেন। সরকারী ৫২৫ টাকা দামে আমরা মাংস বিক্রি করছি। প্রতি বছরের থেকে এ বছরে বেচাকেনা কম।

মুরগীর ব্যবসায়ী সেলিম বলেন, প্রতি বছরের তুলনায় এই বছর কম বিক্রি হচ্ছে মুরগী। তবে ১৫ রোজা পর্যন্ত বেচাকেনা বেশি ছিল। এখন আমাদের বেচাকেনা স্বাভাবিক।

ব্যবসায়ীরা সরকারী দামে বিক্রির কথা বললেও, বাজারে আসা ক্রেতারা জানাচ্ছেন ভিন্ন কথা। তারা বলছেন ঈদকে ঘিরে চড়া দাম রাখা হচ্ছে তাদের থেকে। গত কয়েক দিনের ধরে প্রতিটি পণ্যে ৫ থেকে ১০টাকা বেশি মূল্য নেয়া হচ্ছে।

বাজার ঘুরে দেখা গেছে, পেঁয়াজের দাম কেজিতে ৩টাকা বেড়েছে। কাঁচা মরিচ ১২০টাকা কেজি। রসুন ১২০ টাকা, শশা ৮০ টাকা, বেগুন ৭০ থেকে ৮০টাকা। সেই সাথে অন্যান্য সবজির দামও বৃদ্ধি পেয়েছে।

সৌরভ হোসেন নামে এক সবজি ক্রেতা বলেন, আমি কয়েকদিন আগে কাঁচা মরিচ কিনেছি ৮০ টাকা কেজি। আজ কিনতে হচ্ছে ১২০ টাকায়। এ রকম প্রতিটি সবজিতে কেজি প্রতি ৫ থেকে ১০ টাকা বেড়েছে।

বিডি২৪লাইভ/এএস/এমআর

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: