উত্যক্তের প্রতিবাদ করায় ঢাবি শিক্ষার্থীকে ভিপি অনুসারীদের মারধর

   
প্রকাশিত: ৪:২৯ অপরাহ্ণ, ১২ নভেম্বর ২০১৯

সহপাঠীকে উত্যক্তের প্রতিবাদ করায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) এক শিক্ষার্থীকে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে ভিপি অনুসারীদের বিরুদ্ধে। সোমবার (১১ নভেম্বর) রোকেয়া হলের সামনে এ ঘটনা ঘটে। মারধরের শিকার শিক্ষার্থী ইমরান শাহরিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থী।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ইমরান শাহরিয়ার তার সহপাঠী কনককে নিয়ে মোটর সাইকেলে করে টিএসসি থেকে রোকেয়া হলে নিয়ে যাচ্ছিলেন। এ সময় ঢাকা কলেজের নাহিদ নামের এক শিক্ষার্থী তাদের পিছু নেন। পরে ইমরান কনককে রোকেয়া হলে নামিয়ে দিয়ে চলে যেতে চাইলে বহিরাগত নাহিদ তাকে বাধা দেন। এ সময় নাহিদ ঢাবি শিক্ষার্থী ইমরান শাহরিয়ারের পরিচয় জিজ্ঞাসা করেন এবং তার আইডি কার্ড দেখাতে বলেন। পরে ইমরান শাহরিয়ারও নাহিদের পরিচয় জানতে চাইলে নাহিদ তার পরিচয় দেন তিনি সূর্যসেন হলের জিএস সিয়াম রহমানের ছোট ভাই এবং ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থী। এ সময় শাহরিয়ার বহিরাগত পরিচয় পেয়ে নাহিদের গায়ে ধাক্কা দেয় এবং তার মটর সাইকেলে থাপ্পড় মারে। তখন তাদের মধ্যে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়।

পরে সূর্যসেন হল সংসদের ভিপি মারিয়াম জামান খান সোহান ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি বিষয়টি মীমাংসা করে দেন। তখন ইমরান ভিপি মারিয়াম জামান খান সোহানের সঙ্গে একান্তে কথা বলতে গেলে সোহানের অনুসারীরা ইমরানকে মারধর শুরু করেন। পরে সিনিয়ররা ইমরানকে উদ্ধার করে হলে নিয়ে যান। এ বিষয়ে সূর্যসেন হলের হল সংসদের ভিপি মারিয়াম জামান খান সোহান বলেন, ‘নাহিদ বাইক নিয়ে আসছিল। তখন ছেলেটি ইচ্ছে করে তার বাইক লাগিয়ে দিয়ে চাবি নিয়ে যায়। তাকে কেউ মারধর করেনি। আমি বিষয়টি মীমাংসা করে দিয়েছি।’

আরএএস/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: