প্রচ্ছদ / জাতীয় / বিস্তারিত

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ

উন্নয়নের ধারা ধরে রাখতে প্রচুর জ্বালানি প্রয়োজন

   
প্রকাশিত: ১১:৪২ অপরাহ্ণ, ২৮ নভেম্বর ২০২০

ছবি: ইন্টারনেট

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, মানসম্পন্ন ও সাশ্রয়ী মূল্যে টেকসই বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সরবরাহের লক্ষ্যে সরকার নিরলসভাবে কাজ করছে। পাইপলাইনের মাধ্যমে দেশের সর্বত্র গ্যাস দেয়া সম্ভব নয় বিধায় এলপিজি’র ব্যবহার বাড়ানো হচ্ছে। বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনকে এলপিজির মূল্য রেগুলেট করার অনুরোধ করা হয়েছে। বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের ১ কোটি ৬৩ লাখ গ্রাহক লাইফ লাইনভুক্ত। সরকার তাঁদের ভুর্তকি দেয়। দেশের আর্থ-সামাজিক অবস্থা বিবেচনা করে এখনি ভর্তুকি থেকে বের হওয়ার সুযোগ নেই।

প্রতিমন্ত্রী শনিবার (২৮ নভেম্বর) বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর এনার্জি স্টাডিস এর আয়োজনে ‘ফরমুলেশন অভ্‌ ন্যাশনাল এনার্জি পলিসি’ শীর্ষক ওয়েবিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্যকালে এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে আমাদের কল্পনার থেকেও অনেক বড় জায়গা তৈরি হয়েছে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে।’ এখাত পরিচালনার জন্য অনেক দক্ষ লোকবল প্রয়োজন। ভিশন-২০২১ ও ভিশন-২০৪১ এর সাথে সামঞ্জস্য রেখে প্রযুক্তির প্রয়োগ ও ব্যবহার বাড়াতে হবে। বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে অটোমেশন, স্মার্ট গ্রিড, স্ক্যাডা সেন্টার, আন্ডারগ্রাউন্ড ক্যাবলিং বাস্তবায়ন হলে পুরো সেক্টরেরই আমূল পরিবর্তন হবে।

জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী বলেন, উন্নয়নের ধারা ধরে রাখতে আমাদের প্রচুর প্রাথমিক জ্বালানি প্রয়োজন। ভাসমান টার্মিনালের মাধ্যমে এলএনজি আমদানি করা হচ্ছে। ল্যান্ড ব্যাজড এলএনজি টার্মিনাল করা হচ্ছে। এলপিজি টার্মিনাল করার বিষয়টিও এগিয়ে যাচ্ছে। একইসাথে প্রাকৃতিক গ্যাস অনুসন্ধানের কাজও সমান্তরালভাবে চলছে। তিনি আরো বলেন, নাবায়নযোগ্য জ্বালানির প্রসারে সরকার বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্লাইমেট ভালনারেবল ফোরামের চেয়ারম্যান হওয়ায় ক্লিন এনার্জি, গ্রিন এনার্জি এবং এনার্জি এফেসিয়েন্সির উপর আরও জোর দিচ্ছি। সোলার হোম সিস্টেম-এর সাফল্যের নেপথ্যেও রয়েছে প্রধানমন্ত্রীর দিক-নির্দেশনা। ইলেকট্রিক ভিহাইক্যাল -এর প্রসারে ঐক্যবদ্ধ প্রয়াসের আহ্বান জানিয়ে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী বলেন, ইলেকট্রিক ভিহাইক্যাল পরিবেশবান্ধব, সাশ্রয়ী ও তুলনামূলকভাবে ইঞ্জিনের দক্ষতা অনেক বেশি।

‘ফরমুলেশন অভ্‌ ন্যাশনাল এনার্জি পলিসি’ শীর্ষক ওয়েবিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন অধ্যাপক ম. তামিম। তিনি পলিসি কী, বৈশিষ্ট্য, বাংলাদেশে পলিসি গ্রহণের প্রেক্ষাপট, জ্বালানি পলিসি উন্নয়নের জটিলতা, প্রতিক্রিয়াশীল ও প্ররোচক সিদ্ধান্ত ইত্যাদি বিষয় আলোচনা করেন।

বুয়েটের উপাচার্য অধ্যাপক সত্য প্রসাদ মজুমদার-এর সভাপতিত্বে ও বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর এনার্জি স্টাডিস এর ডিরেক্টর অধ্যাপক ফারসিম এম. মোহাম্মদির সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে বক্তব্য রাখেন বুয়েটের অধ্যাপক ইজাজ হোসাইন ও বুয়েটের সাবেক অধ্যাপক এম নুরুল ইসলাম।

এআইআর/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: