প্রচ্ছদ / স্পোর্টস / বিস্তারিত

অনুদান দিলেন অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী দল

   
প্রকাশিত: ৪:০৯ অপরাহ্ণ, ৯ এপ্রিল ২০২০

করোনা প্রতিরোধে ক্ষতিগ্রস্ত ও ভুক্তভোগীদের সাহায্য করতে এগিয়ে এসেছেন একাধিক ক্রিকেটার। এর আগে বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। এবার করোনার বিপক্ষে লড়াইয়ে নেমেছে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী দল। বাংলাদেশেকে প্রথম বিশ্বকাপের এনে দেওয়া দলটির ক্রিকেটাররা নিজেদের অনুদানের মাধ্যমে আড়াই লাখ টাকার তহবিল গঠন করেছেন। মহৎ এই উদ্যোগে শামিল হয়েছিলেন বিশ্বকাপজয়ী দলের সাথে যুক্ত কর্মকর্তারাও।

করোনা পরিস্থিতিতে দেশে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ সরকার। এতে খুব বেশি প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হচ্ছেন না কেউই। ফলে বিপাকে পড়েছেন নিম্ন আয়ের মানুষেরা। তবে আশার কথা হচ্ছে, আর্তমানবতার সেবায় অনেকেই সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন দরিদ্র মানুষদের দিকে। অসহায় ও ভুক্তভোগীদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটাররাও। নিজেদের একমাসের বেতনের অর্ধেক টাকা দিয়ে ফান্ড তৈরি করেছেন তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিমরা। এছাড়াও ব্যক্তিগত উদ্যোগে সাহায্য করেছেন প্রথম শ্রেণি ও বর্তমানে জাতীয় দলের বাইরে থাকা এক ঝাঁক ক্রিকেটার। পিছিয়ে নেই বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী দল। দলের ক্রিকেটার ও টিম ম্যানেজমেন্ট মিলে সদস্য সংখ্যা ২৫ জন। তারা প্রত্যেকে দিচ্ছেন ১০ হাজার টাকা করে। এই অনুদান জমা হয়েছে কোয়াবের গড়া তহবিলে, যেখানে সিনিয়র দলের সদস্যসহ ঘরোয়া ক্রিকেটের খেলোয়াড়রাও অনুদান প্রদান করছেন।

এ প্রসঙ্গে যুবা দলটির ম্যানেজার আবু এনাম মোহাম্মদ জানান, ‘দলের ক্রিকেটার ও টিম ম্যানেজমেন্টে আমরা ২৫ জনের মত আছি। সবাই ১০ হাজার টাকা করে দিচ্ছে। এতে প্রায় ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা আসবে। আমরা ঠিক করেছি টাকাটা দেবো কোয়াবের গঠিত তহবিলে। তারা যেহেতু বড় আকারে দিচ্ছে। সেখানে আমরা একটা অংশীদার হতে পারবো। দেশের এমন কঠিন সময়ে তরুণরা এমন চিন্তা করেছে তা অসাধারণ। টাকার পরিমাণ যাই হোক, তারা যে দরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে এজন্য দলটির সকলকে ধন্যবাদ।

আরএএস/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: