এবার খোদ উপাচার্যের বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ

   
প্রকাশিত: ৭:৫৪ অপরাহ্ণ, ৮ জানুয়ারি ২০২০

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় সারাদেশে যখন প্রতিবাদ চলছে ঠিক তখন খুবি উপাচার্যের বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ তুলেছেন এক সাবেক ছাত্রী। বিষয়টি প্রকাশ্যে আশার পর শিক্ষার্থীরা বুধবার (৮ জানুয়ারি) বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে। সোমবার (৬ জানুয়ারি) রাতে খুবির সাবেক ওই ছাত্রী (বর্তমানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক) ফেসবুকে একটি পোস্ট দিয়েছেন। সেখানে তিনি তুলে ধরেছেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে চাকরির জন্য তিনি যখন ভাইভা দিয়েছিলেন তখন নিয়োগ বোর্ডে উপাচার্য (ভিসি) তাকে যেভাবে যৌন হয়রানি করেছিলেন তার বিবরণ।

তিনি লিখেছেন- ‘বাস্তব অভিজ্ঞতা আমাদের নির্মম। স্বল্প সময়ের নিয়োগবোর্ডেও খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি মহোদয় নারীর হাফপ্যান্ট পরিধান সংক্রান্ত নানাবিধ আপত্তিকর প্রশ্ন তুলে আমাকে বিব্রত করেছিলেন। সম্প্রতি তাকে নিয়ে দুর্নীতিসহ নানাবিধ অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। কিন্তু একজন নিপীড়ক হিসেবে তাকে কেউ প্রশ্নবিদ্ধ করেননি। জানি না ওই মুহূর্তে নিয়োগ বোর্ডে উপস্থিত পরীক্ষকবৃন্দ কী ভেবেছিলেন। সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠে মানসিক ধর্ষণ যদি বৈধ হয়, তবে ব্যস্ত পথে শিক্ষার্থী ধর্ষণ তো আরও বৈধতা পাবে। উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যৌন নিপীড়ন রোধে প্রচলিত যে আইন তাতে স্পষ্ট বলা আছে, ‘যৌন হয়রানি বা নিপীড়নমূলক উক্তি’, ‘যৌন আবেদন মূলক মন্তব্য বা ভঙ্গি’, ‘অশালীন ভঙ্গি, অশালীন ভাষা বা মন্তব্যের মাধ্যমে উত্ত্যক্ত করা’ সরাসরি যৌন হয়রানি।’

তিনি আরো লিখেছেন, ‘বিষয়গত প্রশ্ন না করে বোর্ডে ভিসি অপ্রাসঙ্গিক বিষয়কেই বারবার টেনে আনছিলেন। বোর্ডে ভিসি তার ওপর ভীষণ মাত্রায় আক্রমনাত্মক ছিলেন, তার বলার ভঙ্গি, তার মন্তব্য এবং তার প্রতি ভিসির তীব্র কটাক্ষ সব মিলিয়ে তিনি ভীষণভাবে নিপীড়িত হয়েছেন। উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যৌন নিপীড়ন রোধে প্রচলিত যে আইন তার ভাষ্য অনুসারে এটি স্পষ্ট যৌন হয়রানি। আর বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়োগ বোর্ডের মতো জায়গাতে স্বয়ং ভিসির দ্বারা একজন নারী এই যৌন নিপীড়নের শিকার হয়েছেন। তাহলে নারীর নিরাপত্তা কোথায়?’

এসএ/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: