প্রচ্ছদ / বিনোদন / বিস্তারিত

আলম প্রসঙ্গে বিপ্লব

এমপি হওয়ার যোগ্যতা আছে কি না জানি না কিন্তু সে চোর হবে না

   
প্রকাশিত: ১২:৪৮ পূর্বাহ্ণ, ২২ অক্টোবর ২০২০

ছবি: সংগৃহীত

‘গত নির্বাচনে হিরো আলম যখন নির্বাচন করতে এলেন তখন তাকে নিয়ে অনেক মজা করেছি। হিরো আলম কেন নির্বাচন করছে, এমপি হওয়ার যোগ্যতা তার আছে কিনা—এসব নিয়ে প্রশ্ন করেছি। আমি একটি জিনিস বুঝতে পারি, হিরো আলম আর কিছু না হোক, সে কখনো চাল চোর আলম হবে না। সে হিরো আলমই থাকবে। সে হয়তো বা হিরো এমপি হতে পারে! তার প্রতি এটা আমার বিশ্বাস।’—মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে এক ভিডিও বার্তায় কথাগুলো বলেছেন এক সময়ের শ্রোতাপ্রিয় সংগীতশিল্পী বিপ্লব।

রবিবার ভিডিওটি নিজের ইউটিউব চ্যানেলে শেয়ার করেন হিরো আলম। ভিডিওতে নানা বিষয়ে কথা বলার পাশাপাশি হিরো আলমকে নিয়ে ব্যঙ্গ-বিদ্রূপের কঠোর সমালোচনা করেন বিপ্লব।

চান্দের বাত্তি খ্যাত এই গায়ক বলেন, গত সংসদীয় নির্বাচনের সময় ইউটিউবে জনপ্রিয় একজন মানুষ, যাঁকে আমরা হিরো আলম হিসেবে জানি; উনি যখন নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে এলেন, আমরা অনেকেই তাঁকে নিয়ে মজা করেছি। হিরো আলম কেন নির্বাচনে আসছে, হিরো আলমের এমপি হওয়ার যোগ্যতা আছে কি না- এসব প্রশ্ন উঠেছে।

জনপ্রিয় এই ব্যান্ডসংগীতশিল্পী বলেন, আমি বলতে চাই, হিরো আলমের এমপি হওয়ার যোগ্যতা আছে কি না এটা আমি জানি না। কিন্তু আমি একটা জিনিস জানি, হিরো আলম আর কিছু হোক আর না হোক, সে কিন্তু কখনো চাল চোর আলম হবে না। সে কিন্তু হিরো আলমই থাকবে।

গত জাতীয় নির্বাচনে টেলিভিশনের একটি টক শোতে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল হিরো আলমকে। বিপ্লব বলেন, হিরো আলমকে টক শোতে সেখানে অনেক বিব্রতকর প্রশ্ন তাঁকে করা হয়েছে। দর্শকদের পক্ষ থেকে প্রশ্ন করা হয়েছে, ‘হিরো আলম আপনি যদি বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হন তখন আপনি কী বলবেন।’ আমি খুব বিনয়ের সঙ্গে, শ্রদ্ধার সঙ্গে বলতে চাই- একটা দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হতে হলে যে তাঁকে ইংরেজি শিখতে হবে, তার কোনো মানে নেই। শিক্ষার বিকল্প নেই। অবশ্যই ইংরেজি শিখতে হবে। কিন্তু আমি বলব না যে ইংরেজি বলতে পারাটাই উচ্চ শিখরে, একদম গাছের ওপরে বসে গেছেন তা কিন্তু নয়।

তিনি বলেন, একটা দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হতে হলে প্রয়োজন তার স্বপ্নটাকে- ঘুমিয়ে দেখা স্বপ্ন নয়, জেগে স্বপ্ন দেখাটাকে বাস্তবায়িত করার যোগ্যতা, তার নতুন নতুন আইডিয়া থাকতে হবে। এটা আমার ধ্যানধারণা, যা আমি লালন করি। এ জন্যই কথাগুলো বললাম। বিপ্লব এখন যুক্তরাষ্ট্রপ্রবাসী। একমাত্র অভিনীত ছবি ‘গেম’-এ খল চরিত্রে অভিনয় করেন।

গত চার বছর পরিবার নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে বাস করছেন বিপ্লব। তার এক মেয়ে, দুই ছেলে। বিপ্লব বলেন— ‘আমার ছোট ছেলে যখন যুক্তরাষ্ট্রে আসে তখন ওর বয়স ছিল খুব কম; দেশ কি তা বোঝার ক্ষমতা হয়নি। বাংলাদেশ কেমন তা-ও সে জানে না। এখন তার বয়স ৬। বাংলাদেশ নিয়ে এখন তার সঙ্গে কথা বলি। তাকে বলি, বাংলাদেশ নিয়ে আমরা গর্বিত। ও যখন সবুজ রং দিয়ে ছবি আঁকে তখন ওকে বলি— এটা আমাদের দেশের রং। আমাদের দেশটা এমন সবুজের মতো সুন্দর!’

বাংলাদেশের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে মর্মাহত বিপ্লব। তিনি বলেন— ‘এখন বাংলাদেশে যা চলছে, এগুলো দেখে ছেলে যদি বড় হয়ে বলে— বাবা, তুমি তো আমাকে মিথ্যা গল্প শুনিয়েছ। তখন আমি তাকে কী জবাব দেব? এই জবাবদিহিতা থেকেই কথাগুলো বলছি। আমাকে কেউ ভুল বুঝবেন না।’

কেএ/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: