প্রচ্ছদ / জাতীয় / বিস্তারিত

করোনার ভ্যাকসিন নিয়ে আইসিডিডিআর’বির সঙ্গে গ্লোবের চুক্তি বাতিল

   
প্রকাশিত: ১১:৪৪ অপরাহ্ণ, ১ ডিসেম্বর ২০২০

ছবি: সংগৃহীত

নিজেদের উদ্ভাবিত করোনার টিকা মানবদেহে পরীক্ষামূলক প্রয়োগে আইসিডিডিআর’বির বিরুদ্ধে অসহযোগিতার অভিযোগ তুলে চুক্তি বাতিল করেছে গ্লোব বায়োটেক। গ্লোব বায়োটেকের করোনাভ্যাকসিনের খবরা খবর নিতে প্রতিষ্ঠানটির কার্যালয়ে পরিদর্শনে যায় স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিবের নেতৃত্বে সরকারের উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দল। এরপর সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার সময় গ্লোব বায়োটেকের চেয়ারম্যান অভিযোগ করেন, মানবদেহে পরীক্ষা চালাতে চুক্তি করেও তিন মাসে কোনও কাজ করেনি আইসিডিডিআর’বি। তাই বাধ্য হয়ে চুক্তি বাতিল করে এখন আইইডিসিআরের পরামর্শ অনুযায়ী সিআরও বাংলাদেশ নামে আরেকটি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে কাজ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

গ্লোব বায়োটেক লি. চেয়ারম্যান মো. হারুনুর রশীদ বলেন, ‘আইসিডিডিআর’বি থেকে আমরা কোনও সাহায্য বা সাড়া পাচ্ছি না। তাই গতকাল আমরা তাদের চিঠি দিয়ে জানিয়ে দিয়েছি ভ্যাকসিন নিয়ে আমরা তাদের সঙ্গে আর কোনও কাজ করবো না।’

এই পরিস্থিতিতে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের পরামর্শে সিআরও নামের আরেক প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে করোনার টিকার পরীক্ষামূলক প্রয়োগের পথে হাঁটছে প্রতিষ্ঠানটি। তবে এই বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি আইসিডিডিআর’বি।

এ বিষয়ে সরকারও সব ধরনের সহযোগিতা দেয়ার আশ্বাস দিয়েছে। স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব আবদুল মান্নান বলেন, ‘আইসিডিডিআর’বি হয়তো বাংলাদেশের কোনো ব্র্যান্ডকে এগিয়ে নিতে আগ্রহী নয়। তারা অক্সফোর্ডের সঙ্গে বেশি যোগাযোগ করছে। গ্লোব তাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ মনে হয় না।’

গ্লোবের টিকা এগিয়ে নিতে সব ধরনের সহযোগিতা দিতে সরকার প্রস্তুত বলে জানান কর্মকর্তারা। ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মে. জে. মাহবুবুর রহমান বলেন, ‘গ্লোবের ভ্যাকসিন নিয়ে যতটুকু সহযোগিতা করা দরকার আমরা তার সবটুকুই করবো। তবে সেফটি, কোয়ালিটির ক্ষেত্রে আমরা কোনও ছাড় দিব না।’

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এবিএম খুরশীদ আলম বলেন, ‘আমাদের পক্ষ থেকে যে জায়গাগুলোতে সহযোগিতা করা দরকার আমরা সেটা করতে প্রস্তুত আছি।’

স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব আবদুল মান্নান বলেন, ‘কিভাবে করোনার টিকা নিয়ে আমরা কিভাবে সহযোগিতা করতে পারি এবং সরকারের পদক্ষেপ গুলা কি হবে এই বিষয়গুলো নিয়ে আমরা খুব দ্রুতই ব্যবস্থা নিচ্ছি।’

এ সময় বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশের সঙ্গে মিলিয়ে গ্লোবের উদ্ভাবিত টিকার নাম ব্যানকোভিডের বদলে বঙ্গভ্যাক্স রাখার সুপারিশ করা হলে সম্মতি দেয় করোনার ভ্যাকসিন আবিষ্কারক দেশি প্রতিষ্ঠানটি।

কেএ/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: