প্রচ্ছদ / সারাবিশ্ব / বিস্তারিত

করোনার মধ্যেই বন্যায় ডুবে গেল স্পেন

   
প্রকাশিত: ৯:৪৫ পূর্বাহ্ণ, ৫ এপ্রিল ২০২০

করোনাভাইরাসের মধ্যেই নতুন সংকটে পড়েছে স্পেন। টানা বৃষ্টিতে বন্যা পরিস্থিতিতে দেশের পূর্ব অংশ ডুবে গেছে। আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, ৪ মাসের বৃষ্টি হয়েছে মাত্র ২৪ ঘণ্টায়। আর এর ফলে পূর্ব স্পেনের অধিকাংশ এলাকায় বন্যায় ভেসে গেছে। খবরে জানা যায়, দেশের পূর্ব অংশে বন্যা পরিস্থিতি দেশটির প্রশাসনের টনক নড়িয়েছে। স্পেনে চার মাসে যত বৃষ্টি হয়, সেই পরিমাণ বৃষ্টি হয়েছে মাত্র ২৪ ঘণ্টায়। কাস্তেলোঁ প্রদেশের রাজধানী কাস্তেলোঁ দেলা প্লানায় প্রায় ১ লাখ ৭০ হাজার মানুষ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন।

স্পেনের আবহাওয়াবীদরা জানিয়েছেন, বছরের এই সময় সাধারণত ৪২ মিলিমিটার মতো বৃষ্টিপাত হয়। কিন্তু ২৪ ঘণ্টায় (৩১ মার্চ থেকে ১ এপ্রিল) বৃষ্টিপাত হয়েছে ১৪৭ মিলিমিটার। তাছাড়া গেল ২৪ ঘণ্টায় যে বৃষ্টিপাত হয়েছে তা গত ৩০ বছরেও হয়নি। ১৯৭৬ সালের পর এবারই এত বৃষ্টিপাত হয়েছে দেশটিতে। ২৪ ঘণ্টা বা একদিনের হিসেবে গত কয়েক বছরে এটি রেকর্ড বৃষ্টি। যার জেরে স্পেনের আলমাসোরা বুরিয়ানা এবং ভিলাফ্র্যাঙ্কা শহর ভাসছে পানিতে। দেশটির উত্তরাঞ্চলের ডেজার্ট ডি লেস পামেস পর্বতমালা থেকে প্রবল বেগে নেমে আসছে বৃষ্টির পানির ঢল। ফলে পরিস্থিতি হয়েছে আরও ভয়াবহ। বাড়িঘর, রাস্তাঘাট সবই প্রায় ডুবতে বসেছে। বন্যায় আটকে পড়া মানুষদের নিরাপদ জায়গায় সরিয়ে নিয়ে যাচ্ছে প্রশাসনের লোকজন। এখনও চলছে উদ্ধারকাজ। তবে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ এখনও জানা যায়নি। এদিকে স্পেনে ভয়ঙ্করভাবে ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস। ইতিমধ্যেই প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের বলি হয়েছেন ১১ হাজারেরও বেশি মানুষ। আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ২৪ হাজার ৭৩৬ জন। গোটা দেশ এখন করোনা মোকাবেলায় ব্যস্ত। দেশজুড়ে জারি হয়েছে লকডাউন। পরিস্থিতি এতটাই ভয়াবহ যে লকডাউনের সময়সীমা আরও বাড়ানো হতে পারে।

আরএএস/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: