প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

করোনা আক্রান্ত সন্দেহ, নরসিংদীর সেই ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ

   
প্রকাশিত: ৫:৪০ অপরাহ্ণ, ২ এপ্রিল ২০২০

তারেক পাঠান, নরসিংদী থেকে:   করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে নরসিংদীর পলাশ উপজেলার ঘোড়াশাল পৌর এলাকার পিরিন্দারটেক গ্রামের আব্দুল মান্নানের ছেলে শেখ আলামিন (৪০) এর নমুনা পরীক্ষার জন্য ঢাকার আইইডিসিআরে পাঠানো হয়েছে। এদিকে এর আগে গত ১ এপ্রিল বুধবার সকাল থেকে ওই ব্যক্তির বাড়িসহ তার পাশের একটি বাড়ি লকডাউন করে লাল কাপড় টাঙ্গিয়ে দিয়েছে পলাশ উপজেলা প্রশাসন। পলাশ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আল বেলাল জানান, বুধবার সন্ধ্যায় নরসিংদী ও পলাশের যৌথ মেডিকেল টিম তার নমুনা সংগ্রহ করে। নমুনা বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের আইইডিসিআরে পাঠানো হয়েছে। শুক্রবার জানা যাবে ৪০ বছরের ওই পুরষের শরীরে করোনা ভাইরাস আছে কিনা।

পলাশ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফারহানা আলী জানান, ঘোড়াশাল পৌর এলাকার পিরিন্দারটেক গ্রামের আব্দুল মান্নানের ছেলে শেখ আলামিন (৪০) এর করোনাভাইরাসের লক্ষণ দেখা দিলে তাৎক্ষণিক ওই বাড়িটি লকডাউন করা হয়। বাড়ির আশেপাশে জনসাধারণের চলাচলে জারি করা হয়েছে নিষেধাজ্ঞা। আক্রান্ত ব্যক্তির নমুনা ঢাকার আইইসিডিআরে পাঠানো হয়েছে। ফাইনাল রির্পোট পাওয়ার পর পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এছাড়া জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে লকডাউন হওয়া বাড়ি দুটিতে খাদ্যসামগ্রী সরবরাহের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

ঘোড়াশাল পুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জ জহিরুল আলম জানান, লকডাউন ঘোষণার পর বাড়িটির সামনে পুলিশ মোতায়েন এবং ওই বাড়ির দুইপাশের রাস্তা বাশেঁর বেড়া দিয়ে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। সন্দেহ জনক ব্যক্তি গত কয়েকদিন আগে নরসিংদী শহরে ইতালি ফেরত তার এক বোনের বাড়ি বেড়াতে যায়। ধারণা করা হচ্ছে সেখান থেকে সংস্পর্শে এসে তিনি আক্রান্ত হতে পারেন। আক্রান্ত ব্যক্তি দুই শিশু কন্যা ও স্ত্রী নিয়ে পিরিন্দার টেক গ্রামের ওই ভবনে বসবাস করছেন। এ দিকে আক্রান্ত ব্যক্তির বন্ধু পাশের বাড়ির রুবেল নামে এক যুবক এ বাড়ীতে আসায় তাকে ও ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

এমআর/এনই

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: