প্রচ্ছদ / অন্যান্য... / বিস্তারিত

করোনা বিষয়ে ক্লিনিক্যাল অভিজ্ঞতা শেয়ার করল জ্যাক মা ও আলিবাবা ফাউন্ডেশন

   
প্রকাশিত: ৫:৫৬ অপরাহ্ণ, ২০ মার্চ ২০২০

জ্যাক মা ফাউন্ডেশন এবং আলিবাবা ফাউন্ডেশন আজ চীনের কোভিড-১৯ চিকিৎসায় সরাসরিভাবে প্রথম সারিতে থাকা জেজিং ইউনিভার্সিটি স্কুল অফ মেডিসিনের (ফাহজু) প্রথম অ্যাফিলিয়েটেড হাসপাতালের চিকিৎসক,অন্যান্য চিকিৎসক প্রশাসক এবং কর্মীদের কাছ থেকে কিছু প্রধান উপদেশ এবং অভিজ্ঞতা শেয়ার করছে যা করোনা ভাইরাসের বিস্তার কমানোর ক্ষেত্রে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

একটি ডিজিটাল হ্যান্ডবুকের আকারে, চিকিৎসা প্রশাসকগণ এবং কর্মীরা স্ক্রিনিং থেকে শুরু করে কোভিড -১৯ সংকীর্ণ রোগীদের সনাক্তকরণ এবং চিকিৎসা পর্যন্ত প্রতিটি পদক্ষেপে তারা যা শিখেছেন তা বিশ্বব্যাপী শেয়ার করেন। ৫০ দিনের সময়কালে, (ফাহজু) কোভিড -১৯ এ আক্রান্ত ১০৪ জন রোগী অসুস্থ হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে তাদের ভর্তি করে, যার মধ্যে ৭৮ জন গুরুতর অসুস্থ রোগীও রয়েছেন। চিকিৎসাকর্মীদের অগ্রণী প্রচেষ্টা এবং নতুন প্রযুক্তিতে বিনিয়োগের মাধ্যমে, ফাহজু সফলতার সাথে চিকিৎসা চালিয়ে যাচ্ছে। এবং এখন পর্যন্ত এক জন চিকিৎসকও আক্রান্ত হননি ভাইরাসটিতে, একজন রোগীও মারা যাননি এবং একটিও মিসডায়াগনোসিস হয় নি।

এটি জ্যাক মা ফাউন্ডেশন এবং আলিবাবা ফাউন্ডেশনের আশা যে বিশ্বজুড়ে চিকিৎসক প্রশাসক এবং কর্মীরা এই হ্যান্ডবুকটি কোভিড-১৯ রোগীদের চিকিৎসায় দরকারী এবং সহায়ক বলে মনে করবেন। হ্যান্ডবুকের একটি ভূমিকায় জ্যাক মা লিখেছেন, `আজ, বিশ্বব্যাপী মহামারী বিস্তার সম্পর্কিত এই অভিজ্ঞতাগুলি মূল্যবান এবং চিকিৎসা কর্মীদের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অস্ত্র। আমরা আশা করছি যে এই হ্যান্ডবুকের সাহায্যে, অন্যান্য আক্রান্ত অঞ্চলের চিকিৎসক এবং নার্সরা শুরু থেকেই অভিজ্ঞতা না থাকলেও এই লড়াইয়ের সম্মুখীন হতে পারবেন।’

চিকিৎসক প্রশাসক এবং কর্মীরা হ্যান্ডবুকটি ডাউনলোড করতে এই লিঙ্কে ক্লিক করুন- covid-19.alibabacloud.com কোভিড-১৯ সর্বশেষ প্রচেষ্টা জানতে টুইটারে অনুসরণ করুন- Jack Ma এবং Jack Ma Foundation। বিস্তারিত জানতে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন।

এমআর/এনই

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: