করোনা ভাইরাস সন্দেহে বাংলাদেশিকে ফিরিয়ে দিল ভারত

   
প্রকাশিত: ১২:১৪ পূর্বাহ্ণ, ২৮ জানুয়ারি ২০২০

বাংলাদেশি নাগরিককে ভিসা থাকা সত্ত্বেও ভারতে ঢুকতে দেয়া হয়নি। দুই মাস আগে চীন ভ্রমণ করায় শওকত আহমেদ নামে ওই ব্যাক্তিকে করোনাভাইরাস আতঙ্কে সোমবার সকাল ৯টার দিকে আগরতলা ইমিগ্রেশন থেকে ফিরিয়ে দেয়া হয়। যদিও প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য পরীক্ষায় করোনাভাইরাসের কোনো লক্ষণ পাওয়া যায়নি তার। শওকত আহমেদ ফেনী সদর উপজেলার সাহিবপুর গ্রামের সৈয়দ আহমেদের ছেলে।

চট্টগ্রামে মোটর যন্ত্রাংশের ব্যবসা করেন শওকত আহমেদ। ব্যবসায়িক কাজে গত নভেম্বর মাসের শেষদিকে চীন ভ্রমণ করেছিলেন তিনি। এ বিষয়ে শওকত জানান, এক সপ্তাহ ভ্রমণ শেষে গত নভেম্বর মাসের শেষদিকে চীন থেকে দেশে ফেরেন তিনি। কেনাকাটা ও বেড়ানোর জন্য সোমবার (২৭ জানুয়ারি) সকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া আন্তর্জাতিক ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে ভারতে ঢোকেন শওকত। এরপর পাসপোর্টে চীনের ভিসা দেখতে পেয়ে আগরতলা ইমিগ্রেশনে তাকে আটকে দেয়া হয়। কারণ হিসেবে ইমিগ্রেশন কর্মকর্তারা বলেন, চীনে করোনাভাইসারের সমস্যা চলছে। আপনি মাত্র দুই মাস আগে চীন ভ্রমণ করেছেন। সে জন্য আপনাকে ঢুকতে দেয়া যাবে না। আপনি এক মাস পরে আসেন। বাংলাদেশে ফেরত পাঠানোর পর আখাউড়া ইমিগ্রেশনে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেও ভাইরাসের লক্ষণ পাওয়া যায়নি। এ বিষয়ে আখাউড়া আন্তর্জাতিক ইমিগ্রেশন পুলিশের এএসআই মোর্শেদুল হক জানান, শওকতের শরীরে করোনাভাইরাসের লক্ষণ নেই। চেকপোস্টে খোলা স্বাস্থ্য ডেস্কে তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়েছে। তিনি পুরোপুরি ফিট আছেন। শুধু চীন ভ্রমণের কারণেই তাকে ভারতে ঢুকতে দেয়া হয়নি।

এফএএস/এসএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: