প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

এস হোসেন আকাশ

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি

কিশোরগঞ্জে সিলিন্ডার বিস্ফোরণে নিহত শ্রমিকের পরিবারকে দেড় লাখ টাকা অনুদান

   
প্রকাশিত: ১১:৫৮ অপরাহ্ণ, ২০ অক্টোবর ২০২০

কিশোরগঞ্জে বিস্কিট ফ্যাক্টরিতে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে নিহত শ্রমিক রাজন এর পরিবারকে দেড় লাখ টাকা অনুদান দিয়েছে কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর। বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন তহবিল থেকে কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের উপমহাপরিদর্শকের কার্যালয় কিশোরগঞ্জ এই অনুদান দিয়েছে। মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) কিশোরগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে জেলা প্রশাসক মো. সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী নিহত শ্রমিক রাজনের পিতা ফালু মিয়ার হাতে অনুদানের চেক তুলে দেন।

এ সময় কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের কিশোরগঞ্জ কার্যালয়ের উপমহাপরিদর্শক শাহ মোফাখ্খারুল ইসলাম ছাড়াও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা উপস্থিত ছিলেন।

কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের কিশোরগঞ্জ কার্যালয়ের উপমহাপরিদর্শক শাহ মোফাখ্খারুল ইসলাম জানান, শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন তহবিল থেকে কর্মরত অবস্থায় দুর্ঘটনায়ে কোন শ্রমিক দৈহিক বা মানসিকভাবে স্থায়ী অক্ষম বা অসমর্থ হলে অথবা তার মৃত্যু ঘটলে সংশ্লিষ্ট শ্রমিক অথবা তার পরিবারকে এককালীন অনধিক দুই লাখ টাকা সাহায্য প্রদান করা হয়। এছাড়া মৃতদেহ পরিবহন ও সৎকারের জন্য অনধিক পঁচিশ হাজার টাকা সাহায্য প্রদান করা হয়ে থাকে। কর্মরত অবস্থায় দুর্ঘটনাজনিত কারণে কোন শ্রমিকের জরুরী চিকিৎসার ব্যয় নির্বাহের জন্য অনধিক পঞ্চাশ হাজার টাকা সাহায্য প্রদান করা হয়ে থাকে।

দূরারোগ্য ব্যাধির চিকিৎসার জন্য অনধিক এক লাখ টাকা সাহায্য প্রদান করা হয়ে থাকে। প্রাতিষ্ঠানিক খাতে কর্মরত মহিলা শ্রমিকের মাতৃত্ব কল্যাণে অনধিক পঁচিশ হাজার টাকা সাহায্য প্রদান করা হয়ে থাকে। এছাড়া কোন শ্রমিকের মেধাবী সন্তানের সাধারণ শিক্ষার ক্ষেত্রে অনধিক পঁচিশ হাজার টাকা এবং উচ্চ শিক্ষার ক্ষেত্রে সরকারি মেডিক্যাল কলেজ এবং সরকারি কৃষি/প্রকৌশল/প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়সহ সরকারি অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের টিউশন ফি, শিক্ষা উপকরণ ও অন্যান্য ব্যয় নির্বাহ বাবদ অনধিক তিন লাখ টাকা সহায়তা প্রদান করা হয়ে থাকে।

প্রসঙ্গত, কিশোরগঞ্জে কিশোরগঞ্জ জেলা শহরের গাইটাল এলাকার সাদিকা ফুড প্রডাক্ট ফ্যাক্টরিতে ২০১৭ সালের ৩ জুলাই সকালে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এতে ফ্যাক্টরিতে কর্মরত শ্রমিক রাজন নিহত হয়। নিহত রাজন মিয়া কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার চৌদ্দশত ইউনিয়নের নোয়াবাড়ি গ্রামের ফালু মিয়ার ছেলে।

এমআর/এনই

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: