প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

কুমারখালীতে ক্রিকেট খেলা নিয়ে গ্রামবাসীর সংঘর্ষে ২ ভাই নিহত

   
প্রকাশিত: ১২:৩১ পূর্বাহ্ণ, ১ এপ্রিল ২০২০

কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার পাহারপুর গ্রামে ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র করে সৃষ্ট দ্বন্দের জেরে দুই দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে নেহেদ আলী মন্ডল(৫৫) ও বকুল হোসেন মন্ডল(৬০) নামে আপন দুই ভাই নিহত হয়েছেন। এই ঘটনায় আরও ৫জন আহত হয়েছেন। আহত ৫ জনকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে কুমারখালী থানা পুলিশ। তবে আহতদের নাম পরিচয় জানাতে পারেনি পুলিশ।

স্থানীয় বাঁধ বাজার পুলিশ ক্যাম্পের এস আই রাশেদ জানান, মঙ্গলবার বিকেলে দক্ষিণ পাহাড়পুর গ্রামের ইউসুফ আলীর ছেলে রাজুর সঙ্গে একই গ্রামের বাবুল শেখের ছেলে ইসতাক আহম্মেদ তুলন ও উল্লাস এবং মোক্তার আলীর ছেলে নাহিদের ক্রিকেট খেলা নিয়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এর সূত্র ধরে ইসতাক আহম্মেদ তুলন তার ছোট ভাই উল্লাস এবং নাহিদকে আটক করে বাঁধ বাজার ক্যাম্পে নিয়ে আসে।

মঙ্গলবার (৩১ মার্চ) দুপুরে দুই পক্ষের অভিভাবকদের উপস্থিতিতে আটক তিনজনকে তাদের অভিভাবকদের জিম্মায় ছেড়ে দেওয়া হয়। পরে তারা গ্রামের ফিরে পিয়ে হামলা পাল্টা হামলায় জড়িয়ে পড়ে।

তবে যাদের পুলিশ ক্যাম্পে ধরে নিয়ে আসা আসা হয়েছিলো তাদের অভিভাবকদের অভিযোগ, স্থানীয় পুলিশ ক্যাম্পের এস আই রাশেদ ও গৌতম কুমার টাকার বিনিময়ে তিন জনকে ক্যাম্পে নিয়ে বেধড়ক মারপিট করে এবং ১০ হাজার টাকার বিনিময়ে তাদের ছেড়ে দেয়। পরে ঘটনাটি জানাজানি হলে দুই পক্ষের মধ্যে কথাকাটির এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ায় এই হতাহতের ঘটনা ঘটে। স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীদের অভিযোগ, পুলিশ ক্যাম্পের দুই কর্মকর্তার দায়িত্বে অবহেলার কারণেই দুই পক্ষের মধ্যে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এ বিষয়ে জানতে চেয়ে কুমারখালী থানার ওসি জাহাঙ্গীর আলমের মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করে ও খুদে বার্তা দিয়েও কোন সাড়া পাওয়া যায়নি।

দুই দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে দুইজন নিহতের সত্যতা নিশ্চিত করতে পারলেও কুমারখালী উপজেলা নির্বহী কর্মকর্তা রাজীবুল ইসলাম খান ঘটনাস্থলের আইন শৃংখলা পরিস্থিতির বিষয়ে কিছু জানেন না জানিয়ে বলেন, সেখানে পুলিশ আছে, আইন-শৃংখলার বিষয়টি উনারাই দেখবেন।

কেএ/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: