প্রচ্ছদ / সারাবিশ্ব / বিস্তারিত

কুয়োর মধ্যে ৯ শ্রমিকের মরদেহ, বেতন না পাওয়ায় গণআ’ত্মহ’ত্যা!

   
প্রকাশিত: ৭:০৬ অপরাহ্ণ, ২৩ মে ২০২০

করোনার কারণে বিশ্বজুড়ে দীঘদিন ধরে চলছে লকডাউন। এ সময় অনেক শ্রমিক ছাঁটাই হচ্ছেন আবার অনেকেই ঠিকমতো বেতন পাচ্ছেন না। এ কারণে তাদের মধ্যে বিরাজ করছে চরম আর্থিক সংকট। সেই আর্থিক সংকট সহ্য করতে না পেরে এবার পরিবারসহ ৯ শ্রমিক আ’ত্মহ’ত্যা করেছেন ভারতের তেলেঙ্গানা রাজ্যে। পুলিশের দাবি সংকটে পড়ে আ’ত্মহ’ত্যা করেছেন তারা।

তেলেঙ্গানার একটি গ্রামের কুয়ো থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ছয়জন পশ্চিমবঙ্গের এবং একই পরিবারের। আর দু’জন বিহারের। একজন ত্রিপুরার। খবরে বলা হয়েছে, পুলিশের প্রাথমিক ধারণা এটা গণআ’ত্মহ’ত্যা। ঘরে ফিরতে পারছিলেন না ওই শ্রমিকরা। দুই মাস ধরে জুটমিল ও অন্য কারখানা থেকে বেতন পাননি তারা। কারও শরীরে আঘাতের চিহ্ন নেই। ফলে হ’ত্যার ঘটনা হওয়ার সম্ভাবনা কম বলে মনে করা হচ্ছে। ঘরে ফিরতে না পারা, আশ্রয় হারানো এবং চরম আর্থিক সংকট নিয়ে সকলের অবস্থা ছিল কোণঠাসা।

পুলিশের বরাত দিয়ে ভারতের সংবাদমাধ্যম আরও জানায়, ২০ বছর আগে গোরেকন্টার এক জুট মিলে কাজ পান পশ্চিমবঙ্গের মকসুদ আলম। কারখানার পাশে দুটি ঘরে পরিবার নিয়ে থাকতেন। লকডাউনে তার বেতন বন্ধ হয়ে যায়। বাসায়ও থাকতে পারেননি। তেলেঙ্গানার স্থানীয় এক দোকানদার নিজের গুদামে আশ্রয় দিয়েছিলেন তাদের। গুদামের কাছে ওই কুয়ো অবস্থিত। কুয়ো থেকে মিলেছে মকসুদ, তার স্ত্রী নিশা, দুই ছেলে সোহেল ও শাবাদ, মেয়ে বুশরা খাতুন এবং তিন বছরের নাতি শাকিলের মরদেহ।

এসএ/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: