প্রচ্ছদ / জাতীয় / বিস্তারিত

গণপরিবহন ও দোকানপাট খোলা নিয়ে যে সিন্ধান্তের কথা জানা গেল

   
প্রকাশিত: ৮:২১ অপরাহ্ণ, ২৭ মে ২০২০

সরকারি ছুটি আর বাড়ছে না। সীমিত আকারে সরকারি-বেসরকারি অফিস-আদালত এবং শিল্প কলকারখানা খুলে দেওয়া হবে। ৩১ মে থেকে সীমিত আকারে স্বল্পসংখ্যক যাত্রী নিয়ে চালু হচ্ছে ট্রেন ও লঞ্চসহ সব গণপরিবহন। হাট-বাজার, দোকান-পাটগুলো স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্রয়-বিক্রয় করতে পারবে সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বুধবার (২৭ মে) বিকেলে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এ বিষয়ে আগামীকাল বৃহস্পতিবার (২৮ মে) প্রজ্ঞাপন জারি হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে। তবে অনলাইন এবং ডিসট্যান্স লার্নিং (দূর শিক্ষণ) কোর্স চলবে। চলবে অনলাইনে বা ভার্চ্যুয়াল ক্লাস। সরকারি, আধা-সরকারি এবং স্বায়ত্বশাসিত এবং সেরকারি ব্যবস্থাপনায় পরিচালতি প্রতিষ্ঠানগুলো নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় সীমিত আকারে চালু করতে পারবে। তবে অবশ্যই বয়স্ক, অসুস্থ ও অন্তঃস্বত্ত্বা নারী কর্মকর্তারা অফিসে আপাতত অফিসে আসবেন না। এক্ষেত্রে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে দেওয়া ১৩ দফা মেনে চলতে হবে।

তিনি বলেন, কর্মকর্তারা নিজ নিজ কর্মস্থল ত্যাগ করবেন না। যে যেখানে কাজ করছেন সেখানেই থাকবেন। যেকোনো অফিসের সভা-সমাবেশগুলো ভার্চ্যুয়ালি করতে হবে। উড়োজাহাজ সংস্থাগুলো নিজ ব্যবস্থাপনায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্লেন চালাবে। সভা-সমাবেশ, গণজমায়েত অনুষ্ঠান বন্ধ থাকবে। মসজিদ ও ধর্মীয় অন্য উপসানালয়গুলো স্বাস্থ্যবিধি মেনে কর্মকাণ্ড চালু রাখতে পারবেন। আগের মতই রাত ৮টা থেকে সকাল ৬টা সবাইকে ঘরে থাকতে হবে। এই সময় জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বের হওয়া যাবে না।

কেএ/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: