প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

গাজীপুরে বোমা নিয়ে ঢুকে ব্যাংক লুটের চেষ্টা

   
প্রকাশিত: ৮:৫৪ অপরাহ্ণ, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

ছবি: সংগৃহীত

ব্যাংকে ঢুকে পাইপ বোমার ভয় দেখিয়ে টাকা লুটের চেষ্টার সময় গাজীপুর মহানগরীতে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। আজ বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে নগরীর চান্দনা চৌরাস্তায় শাপলা ম্যানশনে অবস্থিত বেসরকারি প্রাইম ব্যাংকে এ ঘটনা ঘটে। আটককৃত আবু বকর হাওলাদার (৩২) বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জ থানার বিশারীঘাটা গ্রামের মৃত সেকান্দার আলী হাওলাদারের ছেলে। তিনি গাজীপুর মহানগরীর গাছা থানার বোর্ডবাজার এলাকার বেলমন্ট গামের্ন্টের চাকরিচ্যুত শ্রমিক। তিনি বোর্ডবাজারের বটতলা সড়ক এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কমিশনার মো. আজাদ মিয়া জানান, বুধবার দুপুর পৌনে একটার দিকে আবু বকর একটি কালো ব্যাগ নিয়ে ব্যাংকে প্রবেশ করে। তিনি ব্যাংক ম্যানেজারের কক্ষে ঢুকে তাকে জিম্মি করার চেষ্টা করেন। পরে তার সঙ্গে বোমা রয়েছে জানিয়ে ম্যানেজারের কাছে টাকা দাবি করেন। ম্যানেজার টাকার কথা বলে কৌশলে রুম থেকে বের হয়ে বিষয়টি পুলিশকে জানান। খবর পেয়ে বাসন থানার পুলিশ ব্যাংকে গিয়ে গ্রাহক ও ব্যাংক কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করেন। পরে আবু বকরের কাছ থেকে ব্যাগটি আলাদা করেন এবং তাকে আটক করে বাসন থানায় নিয়ে আসে।

খবর দেওয়া হলে ঢাকার কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটের ১১ সদস্যের একটি বোমা নিষ্ক্রিয়কারী দল বিকেলে ঘটনাস্থলে পৌঁছে বোমাটি নিষ্ক্রিয় করেন।

তিনি আরো জানান, তিনটি পাইপের সমন্বয়ে একটি ইমপ্রোভাইস ইলেকট্রনিক ডিভাইস (আইইডি) দিয়ে বোমাটি তৈরি করা হয়েছে। এটিকে পাইপবোমা বলা হয়। পরে বোমাটি নিষ্ক্রিয় করার পদক্ষেপ নেওয়া হয়। আটক ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তদন্তের পর পুরো বিষয়টি জানা যাবে।

এদিকে ব্যাংকে বোমা নিয়ে প্রবেশ ও ম্যানেজারের কাছে টাকা দাবির ঘটনার খবর ছড়িয়ে পড়লে নগরীর ব্যাস্ততম চান্দনা চৌরাস্তা এলাকায় শতশত মানুষ ভিড় করে। পুলিশ কিছু সময়ের জন্য ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে যানবাহন ও জনসাধারণ চলাচল বন্ধ করে দেয়। বিপুল সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য পুরো এলাকাটি ঘিরে রাখেন।

এআইআর/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: