প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

শামসুজ্জোহা বাবু

রাজশাহী প্রতিনিধি

গির্জায় কিশোরীকে আটকে রেখে ধর্ষণ, ফাদারের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন

   
প্রকাশিত: ৬:৫১ অপরাহ্ণ, ১ অক্টোবর ২০২০

রাজশাহীর তানোরের গির্জায় আদিবাসী এক কিশোরীকে তিনদিন আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার ফাদার প্রদীপ গ্রেগরীর শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১ অক্টোবর) বেলা ১১টার দিকে রাজশাহী মহানগরীর সাহেব বাজার জিরোপয়েন্টে এই মানববন্ধন করেন আদিবাসী ছাত্র পরিষদ।

মানববন্ধনে বক্তারা ফাদার প্রদীপ গ্রেগরীর সর্বোচ্চ শান্তির দাবি জানান। একই সাথে ধর্ষণের ঘটনা সালিশে মিমাংসার চেষ্টা করায় তানোরের মুন্ডুমালা উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কমেল মার্ডিকেও শাস্তির আওতায় আনার দাবি জানান। এছাড়া বক্তারা ভুক্তভোগী কিশোরী এবং তার পরিবারের নিরাপত্তারও দাবি জানান।

মানববন্ধনে সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন, মুক্তিযোদ্ধা প্রশান্ত কুমার সাহা, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ফোকলোর বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. আমিরুল ইসলাম কনক, একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির জেলা সভাপতি শাজাহান আলী বরজাহান, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় কমিটির আহবায়ক রিদম শাহরিয়ার ও ছাত্রনেতা তামিম সিরাজী।

আদিবাসী ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি নকুল পাহান মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন। বক্তব্য রাখেন- সাধারণ সম্পাদক তরুন মুন্ডা, রাজশাহী কলেজ কমিটির সভাপতি সাবিত্রী হেমব্রম, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় কমিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক উত্তম কুমার মাহাতো, দিলিপ পাহান প্রমুখ।

এছাড়াও বক্তব্য রাখেন জাতীয় আদিবাসী পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাধারণ সম্পাদক গনেশ মার্ডি, সাংগঠনিক সম্পাদক বিমল চন্দ্র রাজোয়াড়, দপ্তর সম্পাদক সুভাষ চন্দ্র হেমব্রম, জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক সুসেন কুমার শ্যামদুয়ার, গোদাগাড়ী উপজেলা কমিটির সভাপতি রবীন্দ্রনাথ হেমব্রম, কেন্দ্রীয় সদস্য বিভূতী ভূষণ মাহাতো, আদিবাসী যুব পরিষদের জেলা সভাপতি উপেন রবিদাস প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, গত ২৬ থেকে ২৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত তানোরের মুন্ডুমালা এলাকার একটি গির্জায় এলাকার এক কিশোরীকে (১৫) আটকে রেখে ধর্ষণ করা হয়। ঘটনা জানাজানি হলে গ্রাম্য সালিশে ফাদারকে দুই হাজার টাকা জরিমানা করে পালিয়ে যাওয়ার সুযোগ করে দেয়া হয়। এ নিয়ে থানায় মামলা হলে র‌্যাব অভিযুক্ত ফাদারকে রাজশাহী মহানগরীর একটি বিশপ হাউজ থেকে গ্রেপ্তার করে।

এআইআর/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: