প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

জয়ন্ত শিরালী জয়

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি

গোপালগঞ্জে স্বামী-স্ত্রী করোনায় আক্রান্ত, ৬টি বাড়ি লকডাউন

   
প্রকাশিত: ১১:০৯ অপরাহ্ণ, ৯ এপ্রিল ২০২০

গোপালগঞ্জের স্বামী-স্ত্রী করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। গোপালগঞ্জের সিভিল সার্জন ডাঃ নিয়াজ মোহাম্মদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এটাই জেলায় প্রথম করোনা আক্রান্তের ঘটনা। আক্রান্তদের বাড়ি টুঙ্গিপাড়া উপজেলার গিমাডাঙ্গা মুন্সিরচর গ্রামে। আজ বৃহস্পতিবার (৯ এপ্রিল) সন্ধ্যা ৬টার দিকে টুঙ্গিপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাকিব হাসান তরফদার, উপজেলা চেয়ারম্যান সোলায়মান বিশ্বাস, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা ডাঃ মোঃ জসিম উদ্দিন এবং টুঙ্গিপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এএফএম নাসিম ঘটনাস্থলে ছুটে যান। তারা আক্রান্তদের বাড়িসহ আশপাশের ৬টি বাড়ি লক ডাউন করে সেখানে লাল নিশান টাঙিয়ে দিয়েছেন। ওইবাড়ি গুলোতে যাতায়াতের পথে বাঁশের বেড়া দিয়ে মানুষের চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এ ঘটনার পর থেকে এলাকার মানুষের মধ্যে করোনাভাইরাস আতংক বিরাজ করছে।

এদিকে টুঙ্গিপাড়া পৌরসভার মেয়র শেখ আহম্মেদ হোসেন মির্জা মুঠফোনে জানান, করোনা আক্রান্তের খবর পাওয়ার পর টুঙ্গিপাড়া পৌরসভা এলকা লকডাউন ঘোষণা করেছি। টুঙ্গিপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ জসিম উদ্দিন জানান, আক্রান্ত ওই যুবক ঢাকার গেন্ডারিয়ায় শাহিন ট্রেডার্স নামে একটি বেসরকারি কোম্পানীতে চাকরী করেন। তিনি গত ২৮মার্চ স্ত্রীকে নিয়ে মাদারীপুর জেলার শিবচরের পাচ্চর গ্রামে শ্বশুর বাড়িতে বেড়াতে যান।

তিনি সন্ত্রীকে নিয়ে সেখান থেকে গত ৫ এপ্রিল অসুস্থ অবস্থায় গ্রামের বাড়ি টুঙ্গিপাড়ার গিমাডাঙ্গা মুন্সিরচর আসেন। তার অসুস্ততার বিষযটি স্থানীয়রা থানায় জানায়। গত ৭ এপ্রিল তাদের নমূনা সংগ্রহ করে আইইডিসিআর-এ পাঠানো হয় । বৃহস্পতিবার বিকেলে রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পর স্বামী-স্ত্রী দু’জনই করোনা আক্রান্ত হয়েছেন বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। তিনি আরো জানান, এ ঘটনার পর আক্রন্ত সহ আশপাশের ৬টি বাড়ি লগডাউন করা হয়েছে। সেখানে মাইকিং করে স্থানীয়দের সতর্ক করা হয়েছে।

টুঙ্গিপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ নাকিব হাসান তরফদার জানান, রাতেই করোনা আক্রান্ত স্বামী-স্ত্রীকে টুঙ্গিপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের করোনা ইউনিটের আইসোলেশন ওয়ার্ডে নেয়া হচ্ছে। আক্রান্তরা হলেন, সাজ্জাদ মল্লিক (২১) ও তার স্ত্রী খাদিজা বেগম (২০)।

এমআর/এনই

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: