প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

সাইফুল মাহমুদ

সীতাকুন্ড, চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

চট্টগ্রামে করোনার চিকিৎসায় যুক্ত হচ্ছে বিএসবিএ হাসপাতাল

   
প্রকাশিত: ৫:২৯ অপরাহ্ণ, ২৮ মে ২০২০

করোনায় আক্রান্তদের চিকিৎসায় ভাটিয়ারীতে অবস্থিত বাংলাদেশ শিপ ব্রেকার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিএসবিএ) হাসপাতালকে করোনা হাসপাতাল হিসাবে অধিগ্রহণ করার জন্য পরিদর্শন করেছেন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনসহ সরকারের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

আজ বেলা ১২টার সময় চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের ভাটিয়ারীতে ৬ তলার ১০০ শয্যার বিএসবিএ হাসপাতালটি পরিদর্শন করেছেন সরকারের বেশ কয়েকজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তা। তারা হাসপাতালটি ঘুরে দেখেন। অবকাঠামোগত কোন ত্রুটি আছে কিনা দেখে গেছেন। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হলে রোগীর চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রামের এই হাসপাতালটিতে ১০০টি বেড প্রস্তুত আছে। কিন্তু হাসপাতালটিতে নেই ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট (আইসিইউ)। ফলে করোনা আক্রান্ত কোনো মুমূর্ষু রোগীর আইসিইউ সেবা প্রয়োজন হলেও সেটি দেওয়া সম্ভব হবে না।করোনা আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা সেবা দিতে সব সময় জেলা প্রশাসন কাজ করে যাচেছ। চট্টগ্রামে এই পযন্ত ২২০০ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। আক্রান্তের তুলনায় হাসপাতাল পর্যাপ্ত নয়।

স্থানীয় জনগন মনে করেন হাসপাতালটি যদি করোনা রোগীদের জন্য নেওয়া হয় তাহলে এলাকার মানুষের বড় উপকার হবে। এই মুহুৎ সীতকুণ্ড হচ্ছে করোনার হট স্পট। সীতাকুণ্ডে প্রতিদিন করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলছে। চট্টগ্রাম জেলার মধ্যে সীতাকুণ্ডে আক্রান্তের হার সবচেয়ে বেশি। বিএসবিএ হাসপাতাল পরিদর্শনের সময় উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি মেয়র আ,জ,ম নাছির, চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জেন ডাক্তার ফজলে রাব্বি, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) চট্টগ্রাম শাখার সভাপতি ডা. মুজিবুল হক খান , বিএসবিএ বোড মেম্বার নাঈম আহম্মদ শাহ, সীতাকুণ্ড থানার সার্কেল এসপি শম্পা সাহা, অফিসার ইনচার্জ মোঃ ফিরোজ হোসেন মোল্লা।

বিএসবিএর সাধারন সম্পাদক মোহাম্মদ নাজমুল বলেন,বিএসবিএর হাসপাতালটি সিটি মেয়র সহ সরকারের কয়েকজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তা দেখে গেছেন। টেকনিকেল কমিটির মিটিং – এ – সিদ্বান্ত হবে হাসপাতালটি নেওয়া হবে কিনা করোনা আক্রান্ত রোগীদের জন্য। আরেফিন এন্টারপ্রাইস শিপ ইয়ার্ডের মালিক মোহাম্মদ কামাল উদ্দীন বলেন, এই মুহুৎ আমি মনে করি এই হাসপাতালটি করোনা আক্রান্ত রোগীদের জন্য নেওয়া হলে করোনা আক্রান্ত রোগীদের জন্য খুব উপকার হবে।

এসএ/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: