প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

এম শরীফ আহমেদ

ভোলা প্রতিনিধি

চরাঞ্চল উন্নয়নের জন্য বাজেট বৃদ্ধির দাবি

     
প্রকাশিত: ১০:৪১ অপরাহ্ণ, ১৭ জুন ২০১৯

ছবি: প্রতিনিধি

জাতীয় বাজেটে উপকূলীয় জনগোষ্ঠীর সুরক্ষা অগ্রাধিকার দিয়ে জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় অভিযোজন ও টেকসই উন্নয়ন অর্জনে চরাঞ্চলগুলোর অবকাঠামমোগত উন্নয়নে বাজেট বৃদ্ধি করার দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে জেলা জলবায়ু ফেরাম।

সোমবার (১৭ জুন) সকালে ভোলা প্রেসক্লাব চত্বরে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় বক্তরা জলবায়ু পরির্বতনের ফলে উপকূলীয় এলাকায় ঝুঁকি বেড়েছে উল্লেখ করে উপকূলীয় জনগোষ্ঠিকে সুরক্ষায় জাতীয় বাজেটে পর্যাপ্ত পরিমান অর্থ বরাদ্ধের দাবি জানান।

তারা বলেন, বাংলাদেশে জলবায়ু পবিরর্বতনের ফলে ঝুঁকির মধ্যে থাকা উপকূলীয় জেলাগুলোর মধ্যে অন্যতম ঝুঁকিপূর্ণ জেলা ভোলা। ভোলাতে মূল দ্বীপের সাথে অনেকগুলি বিচ্ছিন্ন চর রয়েছে। যেখানে প্রায় দুই লাখ মানুষ স্থায়ীভাবে বসবাস করছে। এসব বিচ্ছিন্ন চরগুলোতে অনেক ফসলি জমি রয়েছে। যেখান থেকে প্রচুর কৃষি শস্য উৎপন্ন হয়। কিন্তু সরকারের পরিকল্পনার অভাবে এই বিচ্ছিন্ন চরাঞ্চলগুলো দুর্গম চরে পরিনত রয়েছে।

বক্তারা আরও বলেন, সরকার যদি এই সমস্ত চরাঞ্চলের প্রতি নজর দেয়, তবে চরাঞ্চল থেকে আরো বেশি কৃষি পন্য উৎপাদন সম্ভব যা আমাদের জাতীয় অর্থনীতিতে ভূমিকা রাখবে এবং এই দুর্গম চরের মানুষের সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি পাবে। বক্তরা ২০১৯-২০২০ জাতীয় বাজেটে উপকূলীয় এলাকার মানুষের কথা ভেবে বাজেটে অগ্রাধিকারের দাবি জানান।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, জেলা জলবায়ু ফোরামের সভাপতি নুরুল ইসলাম, জেলা পরিষদ প্যানেল চেয়ারম্যান ও জেলা জলবায়ু ফোরামের সম্পাদক অধ্যক্ষ শাফিয়া খাতুন, উপজেলা জলবায়ু ফোরামের সভাপতি সাংবাদিক মোকাম্মেল হক মিলন, সহ-সভাপতি এডভোকেট কামাল উদ্দিন সুলতান, প্রথম আলো প্রতিনিধি নেয়ামতউল্লাহ, কোষ্টট্রাস্ট সিএফটিএম প্রকল্পের টিম লিডার রাশিদা বেগম, আইইসিএম প্রকল্পের জেলা সমন্বয়কারী মিজানুর রহমান, স্কুল শিক্ষক শরমিন জাহান শ্যামলি, বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ প্রমুখ।

কেএ/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: