ছোট ব্যবসায়ীদের হিসাব রাখার অ্যাপ টালিখাতা

   
প্রকাশিত: ২:২৭ অপরাহ্ণ, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০

টালিখাতা ব্যবসার সব ধরনের হিসাব রাখার জন্য একটি মোবাইল অ্যাপ। এই অ্যাপটি সম্পূর্ন ফ্রি এবং ইন্টারনেট ছাড়াই ব্যবহার করা যায়। অ্যাপটি দিয়ে সহজে বেচা, কেনা এবং খরচের সব ধরনের লেনদেনের হিসাব রাখা যায়, হিসাবে ভুল হয় না এবং বাকি আদায় সহজ হয়। এখন হাতে-কলমে হিসাব রাখার ঝামেলা আর নেই।

টালিখাতায় ইতিমধ্যে ৬ লাখেরও বেশি রেজিস্টার্ড ব্যবহারকারী রয়েছে এবং কম সময়ে দেশজুড়ে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের মাঝে সাড়া ফেলেছে। সম্প্রতি নতুন ফিচার ও সুবিধা নিয়ে অ্যাপটির নতুন ভার্সন এসেছে। এই উপলক্ষে ইউএনসিডিএফ এবং শিওরক্যাশ ‘কুটির, ক্ষুদ্র ও ছোট ব্যবসা ডিজিটালাইজেশন এবং কোভিড পরবর্তী সহযোগিতা’ সংক্রান্ত একটি ওয়েবিনার সেমিনারের আয়োজন করেছে।

বাংলাদেশে ১ কোটিরও বেশী কুটির, ক্ষুদ্র, ছোট ও মাঝারি (সিএমএসএমই) ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে যেখানে ৩ কোটিরও বেশী মানুষ কাজ করছেন। দেশ ডিজিটালি এগিয়ে গেলেও, অর্থনীতির এই বিশাল অংশটি আর্থিক অন্তর্ভুক্তি এবং প্রযুক্তিগত দিক থেকে খুব বেশি সুবিধা পাচ্ছেনা। তাই এই বিশাল সেক্টরের কথা মাথায় রেখে, তাদের ব্যবসা প্রসারে প্রযুক্তিগত নানাবিধ সহযোগিতা করাই টালিখাতার মূল উদ্দেশ্য।

সেমিনারের প্রধান অতিথি এফআইডি (অর্থ মন্ত্রণালয়) এর সিনিয়র সচিব মো. আসাদুল ইসলাম বলেন, ‘মহামারীর এই সময় ছোট ব্যবসাগুলোকে ডিজিটালি কানেক্ট করা আরও বেশি জরুরি হয়ে উঠেছে। এটি বাস্তবায়নে সরকার এরসঙ্গে সম্পৃক্ত সব পার্টনারদের নিয়ে সক্রিয়ভাবে কাজ করছে। এই সেক্টরের ডিজিটালাইজেশনে এবং ব্যবসা বৃদ্ধিতে টালিখাতার উদ্যোগ প্রশংসনীয়।’

বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক এবং অন্যতম প্যানেল স্পিকার ড. লীলা রশিদ বলেছেন, ‘ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের একটি বড় অংশ ব্যাংক থেকে পর্যাপ্ত সহায়তা পাচ্ছে না। প্রয়োজনীয় পুঁজির যোগান দিতে চড়া দামে তারা পুঁজি সহায়তা নিয়ে থাকেন। তবে সঠিকভাবে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম সেবা দিলে এই সমস্যাগুলোর সমাধান সম্ভব।’

এই বিষয়ে শিওরক্যাশের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. শাহাদাত খান বলেন, ‘সুপারস্টোরগুলো নিয়মিত ব্যবসা পরিচালনার জন্য সফটওয়্যার ব্যবহার করছে। আমরা শহর এবং প্রান্তিক সব ধরনের ব্যবসায়ীদের ডিজিটাল সুবিধা দিতে টালিখাতা তৈরি করেছি। এই অ্যাপটির সহজ ও ব্যবহার-বান্ধব ইন্টারফেস দিয়ে ব্যবসায়ীরা লেনদেনের হিসাবগুলোকে ডিজিটালাইজ করতে পারবেন।’

ব্র্যাক ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সেলিম আর এফ হোসেন জানান, ‘ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা অর্থনীতির মূল চালক। তবে এই খাতে লোন সরবরাহ করা খুব ব্যয়বহুল কারণ এর জন্য নিবিড় তদারকির প্রয়োজন আছে। তাই, অ্যানালগ ব্যবসাকে ডিজিটালে রূপান্তর করার জন্য আমাদের ডিজিটাল সমাধানগুলো দরকার। এ নিয়ে ব্র্যাক ব্যাংক টালিখাতার সঙ্গে বেশ কিছু কাজ করছে।’

টালিখাতায় ব্যবসায়ীরা নিজেদের শিওরক্যাশ মোবাইল ব্যাংকিং অ্যাকাউন্ট যোগ করে সহজে কাস্টমারদের কাছ থেকে ডিজিটাল পেমেন্ট গ্রহন, সাপ্লায়ারদের পেমেন্ট প্রদান এবং ব্যাংকের সঙ্গে সরাসরি লেনদেন করতে পারবেন।

এমআর/এনই

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: