প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

মোঃ রাসেল ইসলাম

দিনাজপুর প্রতিনিধি

ছয় শিক্ষকের মটরসাইকেল পুড়িয়ে দিল শিক্ষার্থীরা

   
প্রকাশিত: ৭:৫১ অপরাহ্ণ, ৭ আগস্ট ২০১৯

দিনাজপুরের বিরামপুরে এক বিদ্যালয়ের শিক্ষকের অবহেলায় মো.আজিম মন্ডল(১৬) নামের দশম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে।

এই ঘটনায় ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা শিক্ষকদের ব্যবহৃত ৬টি মটর সাইকেলে আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে দেয়। শিক্ষার্থীদের দাবি ‘ওই ছাত্রটি ক্লাসে অসুস্থ হলে শিক্ষকদের ব্যবহৃত মটরসাইকেলে করে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে নেয়ার জন্য সহযোগিতা চাইলে কোন শিক্ষকই সহযোগিতা করতে রাজি হননি’।

বুধবার দুপুরে উপজেলার কাটলা দ্বি-মুখী উচ্চ বিদ্যালয়ে এই ঘটনা ঘটে। পরে,বিরামপুর থানা পুলিশ ও হিলি ফায়ার সার্ভিসের দুইটি ইউনিট এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

নিহত শিক্ষার্থীর নাম আব্দুল আজিম মন্ডল। সে বিরামপুর উপজেলার কাটলা ইউনিয়নের বেণুপুর গ্রামের অবসর প্রাপ্ত পুলিশ কনস্টেবল মো.আসাদুল ইসলাম এর ছেলে। এবং ওই বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির মানবিক বিভাগের ছাত্র।

ওই বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ওমর ফারুক,রায়হান কবিরসহ বেশ কয়েক জন শিক্ষাথী বলেন, মো.আজিম মন্ডল ক্লাস শুরুর দিকে অসুস্থ হয়ে পড়ে। বিষয়টি বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের জানালে তারা কোন ভূমিকা নেয়নি।

তারা বলেন, ওই শিক্ষার্থীকে স্থানীয় ডাক্তারকে দেখালে বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নেয়ার পরামর্শ প্রদান করেন।পরে শিক্ষার্থীর বন্ধুরা মিলে ভ্যান যোগে বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো.নজরুল ইসলাম জানান, ঘটনার খবর পেয়ে বিরামপুর হাসপাতালে যাওয়ার আগেই শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়। ছাত্রদের মটরসাইকেল চাওয়ার অভিযোগ অস্বীকার করে তিনি বলেন, এই বিষয়ে আমার জানা নেই।

বিদ্যালয়ের সভাপতি আলম হোসেন জানান, বিষয়টি আমি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানিয়েছি। ঘটনাটি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বিরামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মনিরুজ্জামান মনির জানান, ঘটনা শোনার পর পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে।

বিরামপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো.তৌহিদুর রহমান জানান, খবর পেয়ে ওই বিদ্যালয়টি পরিদর্শন করেছি। তদন্তকরে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এএস/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: