প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

শামসুজ্জোহা বাবু

রাজশাহী প্রতিনিধি

জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস ও মাদক নিয়ন্ত্রণে সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন র‌্যাব

   
প্রকাশিত: ৩:২০ অপরাহ্ণ, ২৫ জুন ২০১৯

ছবি: প্রতিনিধি

রাজশাহী অঞ্চলে জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস দমন ও মাদক নিয়ন্ত্রণে সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন র‌্যাব-৫ এর নব নিযুক্ত অধিনায়ক পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি মাহ্ফুজুর রহমান।

মঙ্গলবার (২৫ জুন) দুপুর ১২টার সময় রাজশাহীর র‌্যাব সদর দফতরে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি একথা বলেন।

র‌্যাব অধিনায়ক মাহফুজুর রহমান বলেন, রাজশাহী, নাটোর, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, নওগাঁ ও জয়পুরহাট জেলা নিয়ে র‌্যাব-৫ গঠিত। এসব জেলার বেশির ভাগই সীমান্ত সংলগ্ন। বিশেষ করে চাঁপাইনবাবগঞ্জের সীমান্ত সংলগ্ন শিবগঞ্জ ও নাচোল এলাকা দিয়ে জঙ্গি ও মাদক প্রবেশ করে থাকে। যা র‌্যাবের নজরদারিতে আছে।

এছাড়া মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতির কথা জানিয়ে র‌্যাব অধিনায়ক বলেন, মাদকের সঙ্গে কোনো র‌্যাব সদস্য জড়িতের প্রমাণ পেলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। এর আগে বিভিন্ন ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকদের কাছ থেকে জেলার সার্বিক আইনশৃংখলা পরিস্থিতির খোঁজখবর নেন র‌্যাব অধিনায়ক।

র‌্যাব-৫ রাজশাহীর ১৩তম অধিনায়ক হিসেবে ১২ জুন যোগদান করেন মাহফুজুর রহমান। মাহ্ফুজুর রহমান ১৮তম বিসিএস পরীক্ষার মাধ্যমে ২৫ জানুয়ারি ১৯৯৯ তারিখে সহকারী পুলিশ সুপার হিসাবে বাংলাদেশ পুলিশে যোগদান করেন। তিনি বান্দরবান জেলা, এপিবিএন ঢাকা, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ, মুন্সিগঞ্জ জেলা ও টাংগাইল জেলাসহ পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সে এআইজি (এনসিবি-ইন্টারপোল), এআইজি (ক্রাইম-৩) পদেও দায়িত্ব পালন করেন। বাংলাদেশ পুলিশে বিশেষ অবদান রাখায় ২০১৩ সালে তিনি বিপিএম-সেবা পদকে ভূষিত হন।

এর আগে রাজশাহীতে যোগদানের পর থেকেই তিনি মাদকের ওপর বিশেষ আভিযান পরিচালনা করে মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেনে। ইতিমধ্যে তার যোগদানের পর গত ১২ জুন থেকে ২৪ জুন পর্যন্ত রাজশাহীতে র‌্যাবের আভিযানে এক কোটি ৮১ লক্ষ ৯৫ হাজার ১শত ২০ টাকার মাদক দ্রব্য উদ্ধার করে এবং এর সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করেন।

কেএ/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: