প্রচ্ছদ / ক্যাম্পাস / বিস্তারিত

জবি’তে সান্ধ্যকালীন কোর্সের ভর্তি বন্ধ

   
প্রকাশিত: ১০:২৮ অপরাহ্ণ, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯

বন্ধ হচ্ছে সান্ধ্যকালীন কোর্স। তারই ধারাবাহিকতায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) রেজিস্ট্রার ভর্তি বন্ধ সংক্রান্ত আদেশ জারি করেন। দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে সান্ধ্যকালীন কোর্স বন্ধে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিটিশন (ইউজিসি)  বুধবার (১১ ডিসেম্বর) চিঠি দেয়। এর পরদিন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় এ সিদ্ধান্ত নিলো। বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মো. ওহিদুজ্জামানের সই করা আদেশে বলা হয়েছে, পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সান্ধ্যকালীন প্রোগ্রামে নতুন শিক্ষার্থী ভর্তি করা যাবে না। তবে সান্ধ্যকালীন প্রোগ্রামে যেসব শিক্ষার্থীকে এরই মধ্যে ভর্তি নেওয়া হয়েছে, তাদের কোর্স শেষ করার ক্ষেত্রে কোনও বিধিনিষেধ নেই বলে ওই আদেশনামায় উল্লেখ করা হয়।

এ বিষয়ে জবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান বলেন, ‘নতুন করে ইভিনিং-এ আমরা আর ভর্তি নিচ্ছি না। যে কোর্সগুলোতে ভর্তি হয়ে গেছে, সেগুলোই আমরা শেষ করবো।’ রাষ্ট্রপতির বক্তব্যের জেরে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘রাষ্ট্রপতির বক্তব্যের আগেই আমরা মানোন্নয়নের তাগিদে সংকোচনের দিকে যাচ্ছিলাম, ইভিনিংয়ের বিস্তৃতির তুলনায় গুণগতমান নিয়ে সন্দেহ হচ্ছিল৷’ গত ইভিনিং এমবিএতে ৮০টা আসন কমানো হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘মান বাড়াতে হলে বিস্তৃতি কমাতে হবে। মাননীয় আাচার্য বলার পর এটা নিয়ে অন্য আর কিছু চিন্তা করার সুযোগ থাকে না।’

বিজ্ঞপ্তিতে পরবর্তী নির্দেশনার বিষয়ে জানতে চাইলে উপাচার্য বলেন, ‘আমাদের মডার্ন ল্যাঙ্গুয়েজে ইনস্টিটিউটে সার্টিফিকেট কোর্স আছে। এছাড়াও কিছু সাবজেক্টে ষাটের দশক থেকে ইভেনিংয়ে সার্টিফিকেট চলে আসছে। এগুলোর বিষয়ে অ্যাকাডেমিক কাউন্সিলে আলোচনা করতে হবে, আাপাতত সবগুলোতেই ভর্তি বন্ধ থাকবে।’ প্রসঙ্গত, গত সোমবার (৯ ডিসেম্বর) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫২তম সমাবর্তনে রাষ্ট্রপতি ও আচার্য মো. আবদুল হামিদ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে সান্ধ্যকালীন কোর্স পরিচালনা নিয়ে সমালোচনা করেন। তিনি বলেন, ‘অনেক পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় এখন দিনে সরকারি আর রাতে বেসরকারি চরিত্র ধারণ করেছে।’ রাষ্ট্রপতির এমন মন্তব্যের পর সান্ধ্যকালীন কোর্স বন্ধে দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে চিঠি দেয় ইউজিসি।

এফএএস/এসএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: