শাহিনুর রহমান শাহিন

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়

জাবিতে আন্দোলনকারীদের বিক্ষোভ মিছিল

                       
প্রকাশিত: ৪:১৯ অপরাহ্ণ, ১৩ নভেম্বর, ২০১৯

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলামকে অপসারণের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে আন্দোলনরত শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের একাংশ। বুধবার (১৩ নভেম্বর) দুপুর সাড়ে ১২ টায় পূর্বঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের মুরাদ চত্বর থেকে ‘দুর্নীতির বিরুদ্ধে জাহাঙ্গীরনগর’ ব্যানারে একটি মিছিল বের হয়। মিছিলটি ক্যাম্পাসের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক ঘুরে পুরোনো প্রশাসনিক ভবনের সামনে গিয়ে শেষ হয়। পরে সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠত হয়।

এসময় শিক্ষার্থীদের ‘হামলা করে আন্দোলন, বন্ধ করা যাবে না’, ‘অবিলম্বে হল ভ্যাকেন্ট বাতিল কর, করতে হবে’, ‘যেই ভিসি ছাত্র মারে, সেই ভিসি চাই না’, ‘যেই ভিসি সন্ত্রাস করে, সেই ভিসি চাই না’ স্লোগান দিতে দেখা যায়।

সংক্ষিপ্ত সমাবেশে ছাত্র ইউনিয়নের বিশ্ববিদ্যালয় সংসদের সহ-সভাপতি অলিউর রহমান বলেন, ‘দুর্নীতিবিরোধী চলমান আন্দোলনে হামলা করে ফারজানা ইসলাম তার দুর্নীতিবাজ চরিত্রের প্রকাশ ঘটিয়েছেন। তিনি শুধু উপাচার্যই নন, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক হিসেবেও নিজের অবস্থান হারিয়েছেন।’

অধ্যাপক কামরুল আহসান বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ হয়ে আছে। যারা আন্দোলন করছেন তারা অনেক কষ্ট করে বিশ্ববিদ্যালয় রক্ষার আন্দোলন করছেন। মনে রাখতে হবে, যদি ভুল পথে হাঁটি আমরা, যে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীদের হল খালি করে বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে, তারা আবার আন্দোলনে যোগ দিতে আসবে।’

বাংলা বিভাগের শিক্ষক শামীমা সুলতানা বলেন, ‘শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে জাবি ভিসির বিরুদ্ধে অভিযোগ জমা দেয়া হয়েছে, এখন যত দ্রুত তদন্তের ব্যবস্থা করা হয় ততই বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য মঙ্গল। কিন্তু তা না করে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের বাড়িতে বাড়িতে পুলিশ পাঠিয়ে ভয় দেখানো হচ্ছে। যা অভিযোগের সুষ্ঠু তদন্তের বিষয়ে সংশয় তৈরি করে।’

আন্দোলনকারীদের মুখপাত্র অধ্যাপক রায়হান রাইন বলেন, ‘এখনও তদন্তের কোনো পদক্ষেপ নেয়া হয়নি। হামলা-মামলা করে আন্দোলন বন্ধ করার যে প্রক্রিয়া অবলম্বন করা হয়েছে সেটি প্রত্যাখান করে আমরা আমাদের আন্দোলন অব্যাহত রেখেছি ৷ দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে।’ এসময় অন্যদের মধ্যে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের (মার্ক্সবাদী) বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক কায়েস মাহমুদ বক্তব্য দেন।

এসএ/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


পাঠকের মন্তব্য:

বর্তমানে জাতীয় সংসদ, নির্বাচন কমিশন সবিচালয়, আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জামায়াত, জাতীয় পার্টি, অপরাধ, সচিবালয়, আদালত, ব্যবসা-বাণিজ্য, শিক্ষা, খেলাধুলা, বিনোদনসহ প্রায় সব গুরুত্ত্বপূর্ণ বিটেই রয়েছে একঝাঁক তরুণ সাংবাদিক। এছাড়া সারাদেশে বিডি২৪লাইভ ডটকম’র রয়েছে প্রতিনিধি।

লাইফ স্টাইল

নিবন্ধন নং- ০০০৩

© স্বত্ব বিডি২৪লাইভ মিডিয়া (প্রাঃ) লিঃ
এডিটর ইন চিফ: আমিরুল ইসলাম আসাদ
বাড়ি#৩৫/১০, রোড#১১, শেখেরটেক, ঢাকা ১২০৭

ফোন: ০৯৬৭৮৬৭৭১৯০, ০৯৬৭৮৬৭৭১৯১
ইমেইল: [email protected]