প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

জয়পুরহাটে ৭০০ বছরের পুরোনো পরিত্যক্ত মসজিদে ফের আজান ও নামাজ শুরু

   
প্রকাশিত: ৩:৫০ অপরাহ্ণ, ৩ ডিসেম্বর ২০২০

জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল উপজেলার পাঠানপাড়ায় ৭শ’ বছরের পুরনো পরিত্যক্ত মসজিদে পুনরায় আজান ও নামাজ শুরু হয়েছে। গত মঙ্গলবার জামিয়া ইসলামিয়া আজিজিয়া আনওয়ারুল উলুম মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা শামছুল হুদা খানের ইমামতিতে জোহরের নামাজ আদায়ের মাধ্যমে পুনরায় পরিত্যক্ত এ মসজিদে আজান ও নামাজ চালু হয়।

পাঠানপাড়ায় পরিত্যক্ত এ মসজিদটি আবাদের মূল উদ্যোক্তা ড. ইকলিমুর রেজা। এখন মসজিদ ও আশ-পাশের জমিজমা মালিকানা তার বাবা-চাচাদের মালিকানায় রয়েছে। কয়েকশ বছর আগে থেকে মসজিদের আশপাশে হিন্দুদের বস‌তি গড়ে উঠে। মস‌জিদ‌টিও হিন্দুদের মা‌লিকানায় চলে যায়। ১৯৭২ সালে তাঁর বাবা ও বড় চাচা হিন্দু মালিকদের কাছ থেকে পাঁচ একরের মতো ভূমি কিনে নেন। তারপর থেকে এ মসজিদটিও মুসলিমদের মালিকানায় চলে আসে। কিন্তু গত প্রায় ৫০ বছর ধরেও মসজিদটিতে নামাজের উদ্যোগ নেয়নি কেউ।

ব্রিটিশ আমল থেকে ভূমির কিছু অংশ মসজিদ হিসেবে চিহ্নিত ছিল বলে জানা যায়। তখন ভূমি অফিসের দায়িত্বশীলরা তাদেরকে মসজিদের তত্ত্বাবধায়ক এবং অবশিষ্ট ভূমির মালিকানা প্রদান করে দলিল করে দেন। হাজার বছরের পুরনো মসজিদটির অবকাঠামো প্রায় ধ্বংসস্তুপে পরিণত হয়েছে।

দীর্ঘ ৭শত বছর পরিত্যক্ত থাকায় এটির ইটের গাথুনি খুলে খুলে পড়ছে। ধ্বংসপ্রায় মসজিদটির আঙ্গিনায় সামিয়ানা টানিয়ে গত মঙ্গলবার স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও স্থানীয় মুসল্লিরা নামাজ পড়েছেন। পরিত্যক্ত থাকা ঐতিহাসিক এ মসজিদে আজান ও নামাজ শুরু হওয়ায় স্থানীয়দের মাঝে খুশির আমেজ তৈরি হয়েছে। আনন্দ ও উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে অনেকেই বলতে থাকেন, দীর্ঘ দিন পর হলেও আপন পরিচয়ে ফিরেছে পাঠানপাড়ার এ মসজিদ।

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: