প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

ফরিদুল ইসলাম রঞ্জু

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

ঠাকুরগাঁওয়ে নতুন পাঠ্যপুস্তক বিতরণ

   
প্রকাশিত: ৪:৪৮ অপরাহ্ণ, ১ জানুয়ারি ২০২০

ঠাকুরগাঁওয়ে বছরের প্রথম দিনেই বিনামূল্যে পাঠ্যপুস্তক ২০২০ বিতরণ করা হয়েছে। জেলার বিভিন্ন স্কুলের মতোই ঠাকুরগাঁও সিএম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে আড়ম্বরপূর্ণ অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে পাঠ্যপুস্তক বিতরণ করা হয়। আজ বুধবার (১ জানুয়ারি) বই বিতরণ অনুষ্ঠান করা হয়।

পাঠ্যপুস্তক বিতরণ অনুষ্ঠানে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ও সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অরুণাংশু দত্ত টিটোর সভাপতিত্বে এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা শিক্ষা অফিসার খন্দকার মোঃ আলাউদ্দীন আল আজাদ,বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ মোশারফ হোসেন,প্রধান শিক্ষক দীপেন্দ্রনাথ ঝাঁ ও স্কুলের শিক্ষক শিক্ষিকা ও শিক্ষার্থী বৃন্দ।

জেলা শিক্ষা অফিসার আলাউদ্দীন আল আজাদ জানান,এবার জেলার চাহিদা মাধ্যমিকে ১৮৬১৭০৫ বই।NCTB থেকে প্রাপ্ত বই ১৮৬১৭০৫। মোট প্রাপ্তি শতভাগ।দাখিলে মোট চাহিদা ৩২৩৫১৫ টি বই।তার মধ্যে NCTB থেকে প্রাপ্ত ৩০৮৮১৫ টি বই।মোট প্রাপ্তি ৯৫ ভাগ।এবতেদায়ীতে চাহিদা ২৩৫৫০০ টি বই।তার মধ্যে বিতরণ ২০৫৬২০ টি বই।মোট প্রাপ্তি ৮৮ ভাগ।এসএসসি ভোকেশনাল চাহিদা ৫৩০৮৫ টি বই। NCTB থেকে প্রাপ্ত ৪৬৯১৫।মোট প্রাপ্তি ৮৮ ভাগ।দাখিল ভোকেশনাল চাহিদা ৫৩০০ টি বই।NCTB থেকে প্রাপ্তি ৩৫০০। কারিগরি ট্রেড চাহিদা ১৬১৯৮ টি বই।NCTB থেকে প্রাপ্ত ১১৮১৮। মোট প্রাপ্তির হার ৭৩ ভাগ।বাকি বরাদ্দের সব বই ধীরে ধীরে বিতরণ করা হবে বলে জানান শিক্ষা অফিসার।

এদিকে বই বিতরণ অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় বক্তারা বলেন, এক সময় বইয়ের জন্য সবাইকে অনেক বিড়ম্বনার শিকার হতে হতো। স্কুলের টিচার কাছে শুনে কোন পাবলিকেশনের বই ভালো সেটা খোঁজা।তারপর বাবা-মায়ের কাছ থেকে টাকা নেওয়া। এরপর দেখা যেতো কোন না কোন বইয়ের ঘাটতি থেকেই যেতো।আজ আমাদের কোমলমতি শিক্ষার্থীরা বছরের প্রথম দিনই বই পায়, যা আনন্দের ব্যাপার।

এমআর/এনই

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: