প্রচ্ছদ / রাজনীতি / বিস্তারিত

মো. ইলিয়াস

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা-১৮ উপনির্বাচন: বিএনপির দু’পক্ষের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া

   
প্রকাশিত: ৭:০৭ অপরাহ্ণ, ২৩ অক্টোবর ২০২০

ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা-১৮ আসনের উপনির্বাচনে আনুষ্ঠানিক প্রচারণায় নেমেই দলের বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীদের প্রতিবাদের মুখে পড়লেন বিএনপি প্রার্থী এস এম জাহাঙ্গীর। এ সময় দুই পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনাও ঘটে। এতে আহত হয়েছে অন্তত ১৫ জন।

শুক্রবার (২৩ অক্টোবর) আগারগাঁও নির্বাচন কমিশন থেকে প্রতীক বরাদ্দ পাওয়ার পর উত্তরা-৭ নম্বর সেক্টরের ১ নম্বর রোডে কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করে প্রচারণায় নামেন বিএনপির প্রার্থী যুবদল নেতা এস এম জাহাঙ্গীর। কিন্তু পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী একই জায়গা দিয়ে কালো পতাকা মিছিল বের করে গুলশানে মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকারের দিনে সংঘর্ষের ঘটনায় বহিষ্কৃতরা। বিক্ষুব্ধদের অভিযোগ, জাহাঙ্গীরের লোকজন তাদের ওপর হামলা করেছে। কিন্তু উল্টো তারা বহিষ্কার হয়েছেন। তাই বহিষ্কৃতরা জাহাঙ্গীরের বহিষ্কারের দাবিতে এমন কর্মসূচি নিয়ে মাঠে নেমেছেন।

জানা গেছে, জুমার নামাজ শেষে প্রথমে এস এম জাহাঙ্গীর তার লোকজন এবং বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতাদের নিয়ে প্রচারে বের হন মিছিলসহ। উত্তরার রবীন্দ্র সরণি রোডে নির্বাচনী মিছিল নিয়ে হাঁটতে থাকেন জাহাঙ্গীর৷ এসময় পেছন থেকে কালো পতাকা নিয়ে অগ্রসর হতে থাকেন বিক্ষুব্ধরা।

এসময় তারা কালো পতাকা প্রদর্শন করে জাহাঙ্গীরের বিচারের দাবিতে স্লোগান দিতে থাকে। কালো পতাকা মিছিলটি সংগ্রাম মোড়ে পৌঁছানোর আগেই দুই পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়। এ সময় বিএনপির প্রার্থীর মিছিল কিছুটা এলোমেলো হয়ে পড়ে। পরে অবশ্য প্রচার শুরু করেন জাহাঙ্গীর।

বিক্ষুব্ধ অংশের নেতা মতিউর রহমান এ বিষয়ে বলেন, জাহাঙ্গীরের বহিষ্কার দাবি করে আমরা প্রার্থীর মিছিলের শেষভাগে কালো পতাকা প্রদর্শন করে এগিয়ে যাওয়ার এক পর্যায়ে দুই পক্ষের মাঝে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়।

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: