মো. ইলিয়াস

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

তথ্যমন্ত্রীর বক্তব্য নিয়ে মন্তব্য করতে রাজি নন তাবিথ আউয়াল

                       
প্রকাশিত: ৩:২৭ অপরাহ্ণ, ১৬ জানুয়ারি, ২০২০

ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে আন্দোলনের অংশ হিসেবে নিয়েছে বিএনপি। আর এই নির্বাচনে কোন কারচুপি হলে তখন থেকেই আন্দোলন শুরু করবে দলটি। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি মেয়ের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পেয়েছেন দলের ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টুর ছেলে তাবিথ আউয়াল।

নির্বাচন সুষ্ঠু হবে না জেনেও কেন অংশ গ্রহণ করছেন, নির্বাচন কমিশনের কাছ থেকে কোনও নিশ্চয়তা পেয়েছেন কি না, নির্বাচন সুষ্ঠু না হলে কি করবেন, কোন ধরনের কর্মসূচি আসবে কি না? এসবসহ নানান বিষয়ে বিডি২৪লাইভের সাথে একান্তে কথা বলেছেন, তরুণ রাজনীতিবিদ ও ঢাকা উত্তরে বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল। সাক্ষাৎকারটি নিয়েছেন স্টাফ রিপোর্টার মো. ইলিয়াস।

বিডি২৪লাইভ: বিএনপির দাবি বর্তমান নির্বাচন কমিশনের অধীনে নির্বাচন সুষ্ঠু হওয়ার কোন সম্ভাবনা নেই। এটা জেনেও কোন ভরসায় আপনি এই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করলেন?
তাবিথ আউয়াল: আমরা জেনেশুনে এই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছি। আমরা প্রচার প্রচারণার ক্ষেত্রে অনেক সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছি এবং সামনেও হবো। ইতোমধ্যে আমাদের কাউন্সিলররা অনেক মামলা হামলার শিকার হয়েছেন। সকল পরিস্থিতি জেনেশুনে আমরা নির্বাচনে গিয়েছি। নির্বাচনে থাকবো, শেষ পর্যন্ত দেখবো। আমরা মনে করি নির্বাচনে অংশগ্রহণের মাধ্যমে মানুষের ভোটাধিকার ফিরিয়ে দিতে পারব। নির্বাচনে অংশগ্রহণের মাধ্যমে আমরা যে, গণতন্ত্রের মুক্তি আন্দোলনে অংশগ্রহণ করেছি তাতে বড় একটা ভূমিকা রাখবে বলে আমরা মনে করি। গণতান্ত্রিক ধারা বজায় রাখার জন্য, ভোটাধিকার ফিরিয়ে আনার জন্য এবং নির্বাচনে জেতার জন্য আমরা অংশগ্রহণ করেছি। তবে আশঙ্কাটা রয়েই গেছে।

বিডি২৪লাইভ: তথ্যমন্ত্রী আপনাকে এবং ইশরাকের বিষয়ে বলেছেন যে, আপনাদের রাজনীতি করার কোন যোগ্যতা নেই। আপনারা পরিবারতন্ত্র থেকে রাজনীতিতে এসেছেন এই বিষয়টি আপনি কি ভাবে দেখছেন?
তাবিথ আউয়াল: মন্ত্রিসভা এবং সংসদ সদস্য ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে প্রচার প্রচারণা কাজে অংশ গ্রহণ করার কথা নয়। তাই আমি তার এমন বক্তব্যে কোন মন্তব্য করবো না।

বিডি২৪লাইভ: নির্বাচিত হলে ঢাকা সিটি কর্পোরেশন নিয়ে আপনার স্বপ্ন ও ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কি?
তাবিথ আউয়াল: প্রথমে বাস্তব পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে হবে। দূষণ আক্রান্ত একটি পরিবেশ হয়ে গেছে। দূষণ বায়ু, মুক্ত হাওয়া, শব্দ এবং পানি এসব নিয়ে কাজ করতে হবে। জোড়ালো ভাবে ডেঙ্গু নিধনে কাজ করবো। গতবছর আমরা ডেঙ্গুর বিষয়টি দেখেছি সেই রকম পরিস্থিতি যেন আর না হয় এজন্য কাজ করতে হবে। পুকুর খালগুলোকে দখল মুক্ত করতে হবে। ফুটপাতগুলোর অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করতে হবে। নানান রকম কাজগুলো সমন্বয় করে হাতে নিতে হবে। জনগণের সমস্যাগুলো অস্বীকার করবেন না, সমস্যা স্বীকার করে সমাধান করার কথা বলেন তিনি।

বিডি২৪লাইভ: নির্বাচন সুষ্ঠু না হলে আপনারা কি করবেন, কোন ধরনের কর্মসূচি আসবে কি?
তাবিথ আউয়াল: যেই কোন কারণেই হোক ফলাফল যদি আমার পক্ষে না যায় তাহলে এই নয় যে আমরা নিশ্চিত হয়ে সরে যাব। আমরা রাজনীতিবিদ হিসেবে আন্দোলন কন্টিনিউ করব। যে দল জনমত আমাদের পক্ষে তৈরি করতে পারবো তাদেরকে সাথে নিয়ে আন্দোলন করে সামনে এগিয়ে যাবো। রেজাল্ট যাইহোক আমরা যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছি তা বাস্তবায়ন করার জন্য সামাজিক ভাবে চাপ সৃষ্টি করতে হবে।

বিডি২৪লাইভ: বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি নিয়ে আপনার পরিকল্পনা কি?
তাবিথ আউয়াল: বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং দেশবাসীর মুক্তির জন্য আমরা এই নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করছি। এই নির্বাচনের মাধ্যমে গণতন্ত্র এবং খালেদা জিয়াকে মুক্ত করবো।

এমআর/এনই

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


পাঠকের মন্তব্য:

© স্বত্ব বিডি২৪লাইভ মিডিয়া (প্রাঃ) লিঃ
এডিটর ইন চিফ: আমিরুল ইসলাম আসাদ
বাড়ি#৩৫/১০, রোড#১১, শেখেরটেক, ঢাকা ১২০৭

ফোন: ০৯৬১১৬৭৭১৯০, ০৯৬১১৬৭৭১৯১
ইমেইল: info@bd24live.com