তদন্ত শেষ হতে না হতেই বশেমুরবিপ্রবিতে ফের কম্পিউটার চুরি

   
প্রকাশিত: ৬:৫৯ অপরাহ্ণ, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

ছবি: প্রতিনিধি

আশরাফুল আলম, বশেমুরবিপ্রবি থেকে: গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বশেমুরবিপ্রবি) ঈদুল আযহার ছুটিতে ৪৯টি কম্পিউটার চুরির পর আবারো ঘটেছে নতুন করে কম্পিউটার চুরির ঘটনা। তবে এবারে চুরি হয়েছে ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের ২টি কম্পিউটার।

এ বিষয়ে বিভাগের সভাপতি তসলিম আহম্মদ বিডি২৪লাইভকে বলেন, চুরির ঘটনাটি ঠিক কবে বা কীভাবে ঘটেছে এ বিষয়ে আমরা নিশ্চিত নই। তবে রেজাল্ট সংক্রান্ত কাজে গতকাল (১৫সেপ্টেম্বর) বিভাগ খুললে ছাউনি ভাঙাসহ ২টি কম্পিউটার নিখোঁজ পাই এবং তাৎক্ষণিক ভাবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে অবহিত করেছি।

ঝোপঝাড়ে পরিপূর্ণ এবং টিনশেডে বিভাগ কার্যক্রম এর কথা উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, আমাদের বিভাগটি মূলত বিশ্ববিদ্যালয়ের পেছনের দিকে অবস্থিত তাছাড়া ঝোপঝাড় হবার কারণে অনেকবার সাপের উপদ্রব এবং স্বাস্থ্য সমস্যা লক্ষ করেছি। পূর্বে নিরাপত্তা সমস্যাজনিত বিষয় নিয়ে ৩মার্চ বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের নিকট আবেদনপত্র প্রদান করি।

তবে বিশ্ববিদ্যালয় নিরাপত্তা কর্মকর্তা তরিকুল ইসলাম বিডি২৪লাইভকে বলেন, কম্পিউটার চুরির এই বিষয়ে তারা এখনো অবগত নয়। তাছাড়া সকল বিভাগ তালাবন্ধই লক্ষ করেছেন।

প্রসঙ্গত , ঈদুল আযহার ছুটিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি থেকে ৪৯ টি কম্পিউটার চুরি হয়। পরবর্তীতে ১৩ আগস্ট রাতে রাজধানীর মহাখালী এলাকার ক্রিস্টাল ইন রেস্তোরায় গোপালগঞ্জ ও ঢাকার বানানী থানা পুলিশ যৌথ অভিযান চালিয়ে ৩৪ টি কম্পিউটার উদ্ধার করে এবং শিক্ষার্থীসহ ২ জনকে গ্রেফতার করেন। তবে চুরির ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটি গত ৬ সেপ্টেম্বর প্রতিবেদন জমা দিলেও এখন পর্যন্ত কোনো সুরাহা হয়নি।এছাড়া এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৮ সালে ৪৭ টি এবং ২০১৭ সালে ৫০টি কম্পিউটার চুরির ঘটনা ঘটে।

কেএ/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: