অভিনেত্রী টয়ার উপস্থাপনায় লাইভ চ্যাট ইভেন্ট

তরুণীদের জন্য লাইকির নতুন উদ্যোগ ‘লাইকি গার্লস’

   
প্রকাশিত: ১২:৪১ পূর্বাহ্ণ, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০

বাংলাদেশী মেধাবী তরুণীদের সৃষ্টিশীলতাকে উৎসাহিত করার জন্য ‘লাইকি গার্লস’ নামে একটি উদ্যোগ নিয়েছে শর্ট ভিডিও তৈরীর প্ল্যাটফর্ম লাইকি। সকল ধরণের বাঁধা উপেক্ষা করে বিশ্বের সামনে তাঁদের সৃষ্টিশীল প্রতিভা প্রদর্শণ করার জন্য অনন্য এ উদ্যোগ নিয়েছে প্ল্যাটফর্মটি। `লাইকি গার্লস’ শিরোনামে আয়োজিত প্রথম লাইভ চ্যাট ইভেন্টের আয়োজন করে লাইকি। এতে উপস্থাপক হিসেবে ছিলেন অভিনেত্রী মুমতাহিনা টয়া। সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানায়, অন্যান্য তরুণীদের অনুপ্রাণিত করার জন্য ‘লাইকি গার্লস’ চ্যাট ইভেন্টের আয়োজন করা হয়। এতে চারজন লাইকি নির্মাতাদের সাক্ষাতকার নিয়েছেন এবং তাদের সাফল্যের গল্প তুলে ধরার মাধ্যমে অন্যকে উৎসাহ প্রদান করেছেন। সাক্ষাতকার নেয়া চারজন হলেন মারজিয়া মুমু, আয়েশা জামান, আনিকা রাফি ও আফসারা সাদিয়া।

অন্যান্য মেয়েদের কাছে তাঁদের প্রতিভা ও সাফল্যের গল্প তুলে ধরতে বৃহৎ এ প্ল্যাটফর্মে উপস্থাপন করা হয়। বিভিন্ন সাংস্কৃতিক বাঁধা ও প্রতিকূলতা পেরিয়ে কিভাবে স্বপ্ন পূরনের সাহস পেয়েছিলেন সে গল্পই বলেছিলেন প্রতিভাবান এ চারজন লাইকি নির্মাতা। বাংলাদেশ থেকে লাইকি অ্যাপ ব্যবহারকারীরা লাইভ চ্যাট ইভেন্টটি উপভোগ করেন। একই সঙ্গে বন্ধু- বান্ধব, আত্মীয় ও পরিবারের সঙ্গে এটি শেয়ার করে উৎসাহ প্রদান করেছে।

এ বিষয়ে অভিনেত্রী টয়া বলেন, আমি এ ইভেন্টের থিম দেখেই মুগ্ধ হয়েছি। কারণ এখানে সৃষ্টিশীল মেধাবী তরুণীদের সাফল্যের কথা বলা হয়েছে। কিভাবে তাঁরা মেধা ও কঠোর প্ররিশ্রমের মাধ্যমে তাঁদের স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করেছে সেটা উঠে এসেছে এর মাধ্যমে। আমি এখানে নিজেকে দেখতে পাচ্ছি কারন আমার সাফল্যের পেছনেও এরকম একটা গল্প ছিলো। বিজয়ীর সঙ্গে সাক্ষাত করার জন্য আমি অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছি।

লাইকির মুখপাত্র বলেন, লাইকি হল স্বপ পূরণের চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করার মত প্রতিভাবান তরুণদের একটি প্ল্যাটফর্ম। সমাজ এখনও নানা ধরনের ঐতিহ্য ও স্টোরিওটাইপগুলোর শেকলে বাঁধা। মেধাবী, সৃষ্টিশীল ও প্রতিভাবানদের সকল প্রতিকূলতার বিরুদ্ধে লড়াই করে স্বপ্ন পূরণ করাই এখন উপযুক্ত সময়।

এআইআর/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: