প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

জুলফিকার আলী ভূট্টো

নীলফামারী প্রতিনিধি

তাপমাত্রা এবার ৮ ডিগ্রিতে, জনজীবন থেমে গেছে

   
প্রকাশিত: ৯:১২ অপরাহ্ণ, ২১ জানুয়ারি ২০২০

তীব্র ঠান্ডায় কাবু হয়ে পড়েছে লোকজনসহ পশুপাখি। গত ৫/৬দিন থেকে বেড়েছে শীতের তীব্রতা। ঘন কুয়াশার চাদর ভেদ করে উঁকি দিতে পারছে না সূর্য। সেই সাথে বয়ে যাওয়া হিমেল বাতাসে জনজীবনে নেমে এসেছে স্থবিরতা। রোববারের গুড়ি গুড়ি বৃষ্টিপাত শীতের তীব্রতাকে আরও বাড়িয়ে দিয়েছে। এবারে শীতে শীতার্তদের মাঝে ৫৫ হাজার শীতবস্ত্র বিতরণ করেছেন নীলফামারী জেলা প্রশাসন।

মঙ্গলবার (২১ জানুয়ারি) নীলফামারীতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৮ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। পৌষের শুরু থেকে কয়েক দফায় কনকনে শীতের থাবায় জবুথুবু হয়ে পড়েছে জনজীবন। ঘন কুয়াশা আর হিমেল বাতাসে হাড় কাপানো শীতে সবচেয়ে বেশী বিপাকে পড়েছে শ্রমজীবি মানুষ। প্রচন্ড ঠান্ডার কারনে তারা কাজে যেতে পারছে না।

দিন এনে দিন খাওয়া মানুষগুলো আয় কমে যাওয়ায় দুর্বিপাকে পড়েছে তারা।দিনভর বাড়ীতে খড়কুটা জ্বালিয়ে প্রচন্ড ঠান্ডার মোকাবেলা করছে। ঘন কুয়াশায় দৃষ্টিসীমা কমে আসায় দুপুরেও যানবাহনগুলো চলাচল করছে হেডলাইট জ্বালিয়ে। এদিকে ঠান্ডার প্রকোপ রেড়ে যাওয়ায় ফের শীত জনিত রোগের প্রদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। কষ্টে রয়েছে শিশু ও বৃদ্ধরা।গৃহ পালিত গরু,ছাগলসহ পশু পাখিরাও প্রচন্ড ঠান্ডায় কাবু হয়ে পড়েছে। বিকেলের পর থেকে রাস্তা ঘাটে মানুষ জনের চলাচল কমে গেছে। গ্রাম কিংবা শহরের বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে লোকজনদের আগুন তাপাতে দেখা গেছে।

এসএ/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: