তিন মাসের মধ্যে আরও ১০০০ কোটি টাকা দিতে হবে গ্রামীণফোনকে

   
প্রকাশিত: ৯:৫০ পূর্বাহ্ণ, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০

তিন মাসের মধ্যে আরও এক হাজার কোটি টাকা দিতে গ্রামীণফোনকে আপিল বিভাগ নির্দেশ দিয়েছেন। আজ সোমবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) আপিল বিভাগের আদেশের পর গ্রামীণফোন ও বিটিআরসির আইনজীবীরা ব্রিফিং করে এ তথ্য জানান।

এদিকে গতকাল রবিবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনকে (বিটিআরসি) এক হাজার কোটি টাকার চেক হস্তান্তর করেছে গ্রামীণফোন। আদালতের নির্দেশ মেনে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসিকে এই পরিমাণ টাকা দিয়েছে তারা। রবিবার দুপুরে বিটিআরসি কার্যালয়ে গিয়ে জিপির কর্মকর্তারা এই চেক হস্তান্তর করেন। চার সদস্যের প্রতিনিধিদলের নেতৃত্বে ছিলেন গ্রামীণফোনের হেড অব রেগুলেটরি সাদাত হোসেন। এ সময় বিচার বিভাগের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে ১০০০ কোটি টাকা পরিশোধ করায় দেশের শীর্ষ মোবাইল ফোন অপারেটর গ্রামীণফোনকে ধন্যবাদ জানান বিটিআরসির চেয়ারম্যান জহুরুল হক। জহুরুল হক বলেন, ‘গ্রামীণফোন মিস আন্ডারস্ট্যান্ডিং থেকে প্রোপার আন্ডারস্ট্যান্ডিংয়ে এসেছে।’

এর আগে বৃহস্পতিবার গ্রামীণফোনের কাছে বিটিআরসির পাওনা প্রায় ১২ হাজার ৫৮০ কোটি টাকার মধ্যে এক হাজার কোটি টাকা পরিশোধ করতে নির্দেশ দেন আপিল বিভাগ। সোমবারের (২৪ ফেব্রুয়ারি) মধ্যে এই টাকা পরিশোধ করতে বলা হয়। প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন ৭ সদস্যের আপিল বিভাগ ওই নির্দেশ দেন।

আরএএস/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: