প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

নবাবগঞ্জে পুকুর থেকে কলেজ শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার আটক ১

   
প্রকাশিত: ৯:১৫ অপরাহ্ণ, ২৯ নভেম্বর ২০২০

ঢাকার নবাবগঞ্জে পুকুর থেকে হৃদয় হোসেন (১৭) নামে এক কলেজ শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার দিবাগত রাত ২টা ২০ মিনিটে উপজেলার আরঘোষাইল গ্রামের একটি পরিত্যক্ত পুকুর থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। হৃদয় হোসেন শিকাড়ীপাড়া তোফাজ্জল হোসেন ডিগ্রী কলেজের এইচএসসি ১ম বর্ষের ছাত্র ছিলো। নিহত হৃদয় হোসেন উপজেলার ঘোষাইল গ্রামের প্রবাসী নজরুল ইসলামের ছেলে। এ ঘটনায় স্থানীয় শাওন মোল্লা (২০) নামে একজনকে আটক করেছে পুলিশ। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যার দায় স্বীকারও করেন শাওন।

নিহতের মা ময়না বেগম অভিযোগে বলেন ১৪ নভেম্বর সন্ধ্যায় আমার ছেলে হৃদয় ঘুরার জন্য বাড়ি থেকে বের হয়। এর পর সে আর বাড়িতে আসেনি। তার মোবাইলে ফোন করলে তা বন্ধ পাওয়া যায়। অনেক খোঁজাখোজির পর গত ১৭ নভেম্বর থানায় জিডি করা হয়। পরে ২২ নভেম্বর আমার ছেলের মোবাইল নম্বর থেকে অজ্ঞাত নামা একজন আমার মোবাইলে ফোন করে টাকা চায় এবং টাকা না দিলে আমার ছেলেকে মেরে ফেলবে বলে হুমকি দেয়।

নিহতের মা বলেন আমার ছেলেকে বাচাঁনোর জন্য তাদের দেওয়া বিকাশ নাম্বারে ১০ হাজার টাকা পাঠাই এবং জিডি তদন্ত কর্মকর্তাকে আমি বিষয়টি জানাই। পরে তদন্ত কর্মকর্তা আমাকে বলেন দেখেন তারা আবার টাকা চায় কিনা চাইলে আমাকে জানাবেন। পরে আবার তারা অন্য একটি বিকাশ নাম্বার দিয়ে আমার কাছে ৫ লাখ টাকা দাবী করে। আমি সাথে সাথে ওই কর্মকর্মতাকে জানাই। জিডি তদন্ত কর্মকর্তার পরামর্শমতে তাদের দেওয়া বিকাশ নাম্বারটিতে ফোন করে দেখি বিকাশ নাম্বারটি বারুয়াখালীর স্কুল ভবনের মার্কেটের একটি দোকান। ওঁত পেতে থাকা ওই তদন্ত কর্মকর্তা পরে সেখানে উপস্থিত হয়ে হৃদয়ের মোবাইল ব্যবহারকারী ব্যাক্তি শাওন মোল্লাকে আটক করে।

এ বিষয়ে নবাবগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ সিরাজুল ইসলাম শেখ বলেন, আটকৃত শাওন মোল্লার তথ্যমতে পুকুর থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করা হয়। সুরতহাল শেষে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মিটর্ফোড হাসপতালে পাঠানো হয়েছে। হত্যাকান্ডের সাথে যারা জড়িত তাদেরকে ধরার চেষ্টা চলছে।

 

 

এমআর/এনই

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: