প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

নির্বাচনী দায়িত্ব পালন

নামাজে গেল পুলিশ, এসে দেখেন গুলিসহ পিস্তল গায়েব

     
প্রকাশিত: ৮:৩৬ পূর্বাহ্ণ, ১৯ জুন ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলায় নির্বাচনে দায়িত্ব পালনকালে একটি ভোটকেন্দ্র থেকে এক সহকারী পুলিশ পরিদর্শকের (এএসআই) ১২টি গুলিসহ পিস্তল খোয়া গেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল মঙ্গলবার (১৮ জুন) খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার বানিয়াখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে।

এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত দুজনকে আটক করা হয়েছে এবং একইসঙ্গে ওই পুলিশকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

গুলিসহ পিস্তল হারানো ওই পুলিশের নাম নাজমুল হক। তিনি খুলনার দিঘলিয়া থানায় সহকারী পুলিশ পরিদর্শকের (এএসআই) দায়িত্ব পালন করেন।

এ ঘটনার পর জেলা পুলিশ সুপার এস এম শফিউল্লাহর নেতৃত্বে পুলিশ ও র‍্যাব ঘটনাস্থলে গেছে। অস্ত্র ও গুলি উদ্ধারে অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ ও র‍্যাব। তবে এখনও গুলি ও পিস্তলের হদিস পাওয়া যায়নি।

বরখাস্ত হওয়া এএসআই নাজমুল হক বলেন, বেলা আড়াইটার দিকে একটি ব্যাগের ভেতরে ১২টি গুলিভর্তি পিস্তল রেখে নামাজ পড়তে যাই। নামাজ শেষে এসে দেখি আমার ব্যাগটি আছে কিন্তু ভেতরের পিস্তল ও গুলি নেই।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে পুলিশ সুপার এস এম শফিউল্লাহ জানান, এএসআই নাজমুল হককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। অস্ত্র ও গুলি খোয়া যাওয়ার ঘটনায় রাজমিস্ত্রির সহকারী বুলবুল খা ও বিদ্যালয়ের দপ্তরি সঞ্জীব কুমার রাহাকে আটক করা হয়েছে।

ডুমুরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আমিনুল ইসলাম জানান, এএসআই মো. নাজমুল হক (৫৫) ডুমুরিয়া উপজেলা নির্বাচনে স্ট্রাইকিং ফোর্সের সদস্য হিসাবে দায়িত্ব পালন করার জন্য দিঘলিয়া থানা থেকে ডুমুরিয়ার বানিয়াখালী এসেছিলেন। তিনি সোমবার রাতে উপজেলার বানিয়াখালী হাইস্কুলে রাত যাপন করছিলেন। ওই সময় এএসআই নাজমুল হকের কাছে থাকা একটি ব্যাগে তার পিস্তল ও ১২ রাউন্ড গুলি রাখা ছিল। মঙ্গলবার দুপুর ২টার দিকে তিনি তার পিস্তল ও ১২ রাউন্ড গুলি বানিয়াখালি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একটি কক্ষে ব্যাগের মধ্যে রেখে বাইরে নামাজ পড়তে যান। কিছু সময় পর ফিরে আর অস্ত্র ও গুলি পাননি।

ওসি আরও জানান, এ ঘটনায় স্কুলের দপ্তরীসহ দু’জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। অস্ত্র খোয়া যাওয়ার ঘটনায় এএসআই নাজমুল হককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

এআইআর/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: