প্রচ্ছদ / বিনোদন / বিস্তারিত

নায়িকা হতে চেয়েছিলেন ডা. সাবরিনা

   
প্রকাশিত: ১১:৪১ পূর্বাহ্ণ, ১৩ জুলাই ২০২০

১৫ হাজার ৪৬০ জনকে করোনার ভুয়া রিপোর্ট দেওয়ার অভিযোগে জেকেজির ‘চেয়ারম্যান’ ডা. সাবরিনা আরিফ চৌধুরী নামে পরিচিত ডা. সাবরিনা শারমিন হুসাইনকে জিজ্ঞাসাবাদের পর গ্রেফতার দেখিয়েছে তেজগাঁও থানা পুলিশ। এবার জানা গেল, সিনেমার নায়িকা হতে চেয়েছিলেন ডা. সাবরিনা আরিফ চৌধুরী। ২০১৬ সালে দেশের একটি টেলিভিশন চ্যানেলের অনলাইন পোর্টালের সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন নিজের মনের অনেক কথা। কিন্তু বাবার কড়া শাসনের জন্য সেটা ইচ্ছা পর্যন্তই সীমাবদ্ধ ছিলে। শেষ পর্যন্ত হতে হয়েছে চিকিৎসক।

ডা. সাবরিনা সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘একটা সময় আমি নায়িকাও হতে চেয়েছিলাম একসময়। নায়িকা হওয়ার জন্য প্রস্তাবও পেয়েছিলাম। লুকিয়ে লুকিয়ে অভিনয়ের রিহার্সালে যেতাম। কিন্তু বাবার কড়া শাসনের কারণে আর সেটি হয়ে ওঠেনি। যেদিন ফাইনাল শুটিং হবে সেদিন বাবা বুঝে গেলেন সব কিছু। আমার আর অভিনয় করা হলো না।’ তিনি আরও বলেন, ‘চাকরি জীবনে পা রাখার পর আমার প্রথম পোস্টিং হয় দিনাজপুরের এক প্রত্যন্ত অঞ্চলে। এমন একটি জায়গা ছিল, যেখানে কাটাকুটি করার মতো কোনো যন্ত্র নেই। কোনো রকমে কিছু ওষুধ আসত। সেখানে থেকে আমার মনে হয়েছে যদি এই জায়গাগুলো উন্নত করা যায়, তাহলে অনেক চিকিৎসক গিয়ে কাজ করত। তবে নেই বলেই কাজ করার সুযোগ সেসব জায়গায় কম।এরপর ঢাকা মেডিক্যাল কলেজে বদলি হই। এখন কাজ করছি জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে।’

আরএএস/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: