প্রচ্ছদ / স্পোর্টস / বিস্তারিত

নিজের করা ৪০০ রানের রেকর্ড কারা ভাঙতে পারেন, জানালেন লারা

   
প্রকাশিত: ২:৪০ অপরাহ্ণ, ২২ মার্চ ২০২০

টেস্ট ক্রিকেটে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত ইনিংসের রেকর্ডটা নিজের দখলে রেখেছেন ব্রায়ান লারা। দীর্ঘ ১৫ বছরেরও বেশি সময় ধরে এই রেকর্ডটি নিজের করে রেখেছেন ক্রিকেটের এই ‘রাজপুত্র’। এই সময়ের মধ্যে বেশ কয়েক জন ক্রিকেটার ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিংবদন্তি সাবেক ব্যাটসম্যানের অনবদ্য কীর্তির কাছাকাছি পৌঁছেছেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত অধরাই থেকে গেছে তার রেকর্ড। তবে এই ক্রিকেটার মনে করছেন, তার রেকর্ড ভাঙা পড়তে পারে।

বর্তমান সময়ের ব্যাটসম্যানদের পক্ষে তাকে ছাপিয়ে যাওয়া সম্ভব বলে মন্তব্য করেছেন লারা। সম্ভাব্য তিন ক্রিকেটারের নামও তিনি উল্লেখ করেছেন যারা তার গড়া ৪০০ রানের চেয়ে বড় ব্যক্তিগত ইনিংস খেলার সামর্থ্য রাখেন। তারা হলেন- অস্ট্রেলিয়ার ডেভিড ওয়ার্নার এবং ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও ওপেনার রোহিত শর্মা। সম্প্রতি লারার রেকর্ডের কাছাকাছি চলে গিয়েছিলেন ওয়ার্নার। পাকিস্তানের বিপক্ষে দিবা-রাত্রির টেস্টে যখন ৩৩৫ রানে ব্যাট করছিলেন এই বাঁহাতি, তখনই তার দলের অধিনায়ক টিম পেইন সিদ্ধান্ত নেন ইনিংস ঘোষণার। ফলে ওয়ার্নারকে থামতে হয় সেখানেই। অ্যাডিলেডের মাঠে অজি ওপেনারের ব্যাটিং দেখে এক পর্যায়ে লারার মনে হয়েছিল, রেকর্ডটা হয়তো ভাঙা পড়তে যাচ্ছে।

শনিবার (১৪ ডিসেম্বর) ভারতের নয়াদিল্লিতে এক অনুষ্ঠানে তিনি জানিয়েছেন, ‘মনে হচ্ছিল, সে রেকর্ডটা ভেঙে ফেলবে। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার ইনিংস ঘোষণার সিদ্ধান্তটিও যথার্থ প্রমাণিত হয় কারণ পরে তারা পাকিস্তানের ছয় উইকেট তুলে নিতে পেরেছিল। এটা পুরোটাই ভাগ্যের ব্যাপার। আপনি পরিকল্পনা করে কিছু করতে পারবেন না।’ অনুষ্ঠানে লারার কাছে প্রশ্ন ছুঁড়ে দেওয়া হয়েছিল, তার রেকর্ড কে স্পর্শ করতে বা ভাঙতে পারেন। জবাবে তিনি বলেছেন, ‘আক্রমণাত্মক খেলোয়াড়রাই আসলে আমার রেকর্ড ভাঙার সামর্থ্য রাখে। যেমন- বর্তমানে ওয়ার্নার। আর অতীতে ক্রিস গেইল, সনাথ জয়সুরিয়া, ম্যাথু হেইডেন ও ইনজামাম উল হক। বিরাট কোহলি ও রোহিত শর্মা, তারা যদি এক দিন বা দেড় দিন ব্যাট করে তবে নিশ্চিতভাবেই আমার রেকর্ড ভাঙতে পারবে। আশা করছি, সেই মুহূর্তটি দেখার জন্য আমি থাকব। আমি এটা মনে করি না যে রেকর্ড গড়া হয় অধরা থাকার জন্য।’

আরএএস/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: