প্রচ্ছদ / রাজনীতি / বিস্তারিত

‘নির্বাচন ট্রাইব্যুনালে’ ইশরাক ও তাবিথের মামলা

   
প্রকাশিত: ১২:১৫ অপরাহ্ণ, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ‘ভোট ডাকাতি’ ও ‘কারচুপির’ অভিযোগ এনে ‘নির্বাচনী ট্রাইব্যুনালে’ মামলা করতে যাচ্ছে বিএনপি। ভোটের সামগ্রিক ফলাফল বাতিলের দাবি জানিয়ে উত্তরের বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল ও দক্ষিণের ইশরাক হোসেন ১ মার্চ (রোববার) ট্রাইব্যুনালে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। ইতিমধ্যে এ সংক্রান্ত প্রাথমিক প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছেন তারা।

জানতে চাইলে উত্তরের মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল বলেন, ১ ফেব্রুয়ারি নির্বাচনের নামে প্রহসন হয়েছে। ভোটাররা তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেননি। কেন্দ্র দখল করে ক্ষমতাসীনরা ইচ্ছামতো তাদের প্রার্থীর পক্ষে ভোট দিয়েছেন। ইভিএমেও কারচুপি করেছে। নির্বাচনের কারচুপির যাবতীয় তথ্য আমরা সংগ্রহ করেছি।

তিনি বলেন, আমরা সবকিছু প্রস্তুত করেছি। রোববার নির্বাচনী ট্রাইব্যুনালে মামলা করা হবে। নির্বাচনে অনিয়ম নিয়ে আমাদের কাছে যেসব তথ্যপ্রমাণ রয়েছে, তা আদালতে উপস্থাপন করা হবে। আদালত যদি নিরপেক্ষভাবে সবকিছু বিশ্লেষণ করে রায় দেন, তাহলে ভোটের ফলাফল বাতিল করে পুনরায় নির্বাচন দেয়ার আদেশ দেবেন বলে আশা করি। দক্ষিণের বিএনপির মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেন বলেন, নির্বাচনী ট্রাইব্যুনালে যাওয়ার সব ধরনের প্রস্ততি শেষ। উত্তর ও দক্ষিণ একসঙ্গেই মামলা করার পরিকল্পনা রয়েছে।

প্রসঙ্গত, দুই সিটির ফলাফল প্রত্যাখ্যান করেছে বিএনপি। দলটির পরাজিত দুই প্রার্থী তাবিথ ও ইশরাক সংবাদ সম্মেলনে সিটি ভোটের ফলাফল বাতিল করে পুনরায় নির্বাচনের দাবি জানান। একই সঙ্গে ভোটের নানা ‘অনিয়ম ও কারচুপির’ তথ্যপ্রমাণ বাংলাদেশে নিযুক্ত বিভিন্ন দেশের কূটনৈতিকদের কাছে তুলে ধরেন তারা।

এসএ/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: